Dhaka ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে ২৪ মিটার চওড়া সড়কে ১২ মিটার কালভার্ট!

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:১১:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭
  • / ১৫৬১ জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার রামদিয়াÑমদাপুর সড়কের বারমল্লিকা গ্রামে খালের উপর একটি অদ্ভুত কালভার্ট নির্মাণ হয়েছে। সড়কটি চওড়ায় ২৪ মিটার হলেও কালভার্টটি মাত্র ১২ মিটার চওড়া। এতে যান চলাচলে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টিতে ধসে পড়ছে রাস্তার মাটি। স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন অধিদপ্তর (এলজিইডি) এই কালভার্টটি নির্মাণ করেছে।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, এটি আঞ্চলিক সড়ক হলেও গুরুত্ব নেহায়েৎ কম নয়। দৌলতদিয়াÑকুষ্টিয়া মহাসড়কের কালুখালী উপজেলার গান্ধীমারা বাসস্ট্যান্ড থেকে বালিয়াকান্দিতে যাতায়াতের সহজ পথ এটি। প্রতিদিন শত শত যানবাহন চলাচল করে রাস্তাটি দিয়ে। রাস্তার চেয়ে কালভার্টটি চওড়ায় অর্ধেক হওয়ায় যান চলাচলে প্রতিনিয়তই সমস্যায় পড়তে  হয়। দূর থেকে দে্েখ বোঝার উপায় নেই কালভার্টটি রাস্তার অর্ধেক। তাই অনেক সমস্যায় দুর্ঘটনার  মত ঘটনাও ঘটে। কালভার্টটি ছোট হওয়ার কারণে একটু বৃষ্টি এলেই রাস্তার মাটি ধসে পড়ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাস্তা।
এলজিইডি সূত্র জানায়, রাজবাড়ী এলজিইডি’র বাস্তবায়নে জিএফআরআইডিপি-১১ প্রকল্পের আওতায় রামদিয়া হাটÑমদাপুর ইউনিয়ন অফিস রাস্তায় মুক্তিযোদ্ধা আজিম উদ্দিনের বাড়ির কাছে এ কালভার্ট নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১১লাখ ৮৩ হাজার ৯০ টাকা।
বালিয়াকান্দি উপজেলা এলজিইডি অফিসের উপসহকারী প্রকৌশলী বজলুর রহমান জানান, তারা ২৪ মিটারের নক্সা করে  রাজবাড়ী এলজিইডি অফিসে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু রাজবাড়ী এলজিইডি অফিস ১২ মিটারের বক্স কালভার্টের নক্সা করে টেন্ডার করায়।
বালিয়কান্দি এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী সজল কুমার দত্ত বলেন, আমি সবেমাত্র যোগদান করেছি।  বিষয়টি সম্পর্কে আমার জানা নেই।
রাজবাড়ী এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী খান এ শামীম সাংবাদিকদের জানান, তিনি রাজবাড়ীতে যোগদানের আগেই কালভার্টটির এস্টিমেট করা হয়েছিল। তখন মূল রাস্তাটি চওড়া কম ছিল। রাস্তার দু পাশে সম্প্রসারণ করার কারণে কালভার্টটি আরও ছোট দেখা যাচ্ছে। সামান্য বৃষ্টি হলেও ভাঙছে। খুব শীগগীরই কালভার্টটি সম্প্রসারণ করা হবে বলে তিনি আশ^াস দেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে ২৪ মিটার চওড়া সড়কে ১২ মিটার কালভার্ট!

প্রকাশের সময় : ০৬:১১:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার রামদিয়াÑমদাপুর সড়কের বারমল্লিকা গ্রামে খালের উপর একটি অদ্ভুত কালভার্ট নির্মাণ হয়েছে। সড়কটি চওড়ায় ২৪ মিটার হলেও কালভার্টটি মাত্র ১২ মিটার চওড়া। এতে যান চলাচলে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টিতে ধসে পড়ছে রাস্তার মাটি। স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন অধিদপ্তর (এলজিইডি) এই কালভার্টটি নির্মাণ করেছে।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, এটি আঞ্চলিক সড়ক হলেও গুরুত্ব নেহায়েৎ কম নয়। দৌলতদিয়াÑকুষ্টিয়া মহাসড়কের কালুখালী উপজেলার গান্ধীমারা বাসস্ট্যান্ড থেকে বালিয়াকান্দিতে যাতায়াতের সহজ পথ এটি। প্রতিদিন শত শত যানবাহন চলাচল করে রাস্তাটি দিয়ে। রাস্তার চেয়ে কালভার্টটি চওড়ায় অর্ধেক হওয়ায় যান চলাচলে প্রতিনিয়তই সমস্যায় পড়তে  হয়। দূর থেকে দে্েখ বোঝার উপায় নেই কালভার্টটি রাস্তার অর্ধেক। তাই অনেক সমস্যায় দুর্ঘটনার  মত ঘটনাও ঘটে। কালভার্টটি ছোট হওয়ার কারণে একটু বৃষ্টি এলেই রাস্তার মাটি ধসে পড়ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাস্তা।
এলজিইডি সূত্র জানায়, রাজবাড়ী এলজিইডি’র বাস্তবায়নে জিএফআরআইডিপি-১১ প্রকল্পের আওতায় রামদিয়া হাটÑমদাপুর ইউনিয়ন অফিস রাস্তায় মুক্তিযোদ্ধা আজিম উদ্দিনের বাড়ির কাছে এ কালভার্ট নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১১লাখ ৮৩ হাজার ৯০ টাকা।
বালিয়াকান্দি উপজেলা এলজিইডি অফিসের উপসহকারী প্রকৌশলী বজলুর রহমান জানান, তারা ২৪ মিটারের নক্সা করে  রাজবাড়ী এলজিইডি অফিসে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু রাজবাড়ী এলজিইডি অফিস ১২ মিটারের বক্স কালভার্টের নক্সা করে টেন্ডার করায়।
বালিয়কান্দি এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী সজল কুমার দত্ত বলেন, আমি সবেমাত্র যোগদান করেছি।  বিষয়টি সম্পর্কে আমার জানা নেই।
রাজবাড়ী এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী খান এ শামীম সাংবাদিকদের জানান, তিনি রাজবাড়ীতে যোগদানের আগেই কালভার্টটির এস্টিমেট করা হয়েছিল। তখন মূল রাস্তাটি চওড়া কম ছিল। রাস্তার দু পাশে সম্প্রসারণ করার কারণে কালভার্টটি আরও ছোট দেখা যাচ্ছে। সামান্য বৃষ্টি হলেও ভাঙছে। খুব শীগগীরই কালভার্টটি সম্প্রসারণ করা হবে বলে তিনি আশ^াস দেন।