Dhaka ০৫:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীর কালুখালীতে কৃষকের লাশ উদ্ধার

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:১৩:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০১৭
  • / ১৩৭৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের হরিণবাড়িয়া গ্রামের একটি গম ক্ষেত থেকে বুধবার সকালে সলেমান শেখ বন্ধু (৩০) নামে এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে কালুখালী থানার পুলিশ। সে একই গ্রামের কুতুবউদ্দিন শেখের ছেলে। তার একটি চোখ উপড়ানো, কান কাটা ছিল। নির্যাতনের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের। কেন কারা তাকে হত্যা করেছে তা এখনও জানা যায়নি।
স্থানীয় বাসিন্দা হোসেন আলী জানান, মঙ্গলবার বিকেলে তাকে সবশেষ হরিণবাড়িয়া বাজারে দেখা গিয়েছিল। এরপর তাকে আর দেখা যায়নি। বাড়িও ফেরেনি।
কালুখালী থানার ওসি নুরে আলম ফকীর জানান, ছয় মাস আগে সালেমানের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্য সুখের ছিলনা। গত সোমবার তার স্ত্রী একই উপজেলার মোহনপুরে বাবার বাড়ি যায়। সলেমানও পরদিন মঙ্গলবার শ^শুরবাড়ি গিয়ে বিকেলে নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়।  কিন্তু সে বাড়ি ফেরেনি। বুধবার সকালে এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে সলেমানের বাড়ি থেকে পাঁচশ গজ দূরে একটি গম ক্ষেতের মধ্য থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার বাম চোখ উপড়ানো ও একটি কান কাটা এবং মুখে বিষ ঢালা রয়েছে। তার গলায় মাফলার পেচানো থাকলেও দাগ নেই। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা অন্য কোথায় থেকে হত্যা করে তার লাশ এখানে ফেলে রেখে গেছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী মর্গে পাঠানো হবে। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ দুর্বৃত্তদের খুঁজে বের করতে মাঠে নেমেছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীর কালুখালীতে কৃষকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৯:১৩:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের হরিণবাড়িয়া গ্রামের একটি গম ক্ষেত থেকে বুধবার সকালে সলেমান শেখ বন্ধু (৩০) নামে এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে কালুখালী থানার পুলিশ। সে একই গ্রামের কুতুবউদ্দিন শেখের ছেলে। তার একটি চোখ উপড়ানো, কান কাটা ছিল। নির্যাতনের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের। কেন কারা তাকে হত্যা করেছে তা এখনও জানা যায়নি।
স্থানীয় বাসিন্দা হোসেন আলী জানান, মঙ্গলবার বিকেলে তাকে সবশেষ হরিণবাড়িয়া বাজারে দেখা গিয়েছিল। এরপর তাকে আর দেখা যায়নি। বাড়িও ফেরেনি।
কালুখালী থানার ওসি নুরে আলম ফকীর জানান, ছয় মাস আগে সালেমানের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্য সুখের ছিলনা। গত সোমবার তার স্ত্রী একই উপজেলার মোহনপুরে বাবার বাড়ি যায়। সলেমানও পরদিন মঙ্গলবার শ^শুরবাড়ি গিয়ে বিকেলে নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়।  কিন্তু সে বাড়ি ফেরেনি। বুধবার সকালে এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে সলেমানের বাড়ি থেকে পাঁচশ গজ দূরে একটি গম ক্ষেতের মধ্য থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার বাম চোখ উপড়ানো ও একটি কান কাটা এবং মুখে বিষ ঢালা রয়েছে। তার গলায় মাফলার পেচানো থাকলেও দাগ নেই। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা অন্য কোথায় থেকে হত্যা করে তার লাশ এখানে ফেলে রেখে গেছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী মর্গে পাঠানো হবে। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ দুর্বৃত্তদের খুঁজে বের করতে মাঠে নেমেছে।