Dhaka 1:02 am, Friday, 9 December 2022

রাজবাড়ীর বিচাত্রা মাদ্রাসায় ‘মাস সাইকোসিস’ রোগে ৩ দিনে ২২ ছাত্রী আক্রান্ত

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:37:30 pm, Wednesday, 8 February 2017
  • / 1419 জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ ইউনিয়নের বিচাত্রা ফাজিল মাদ্রাসায় ‘মাস সাইকোসিস’ নামক রোগে গত তিন দিনে ২২ ছাত্রী আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে বুধবার সকালে পাঁচ জনকে  রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছাত্রীরা হলো মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী কেয়া খাতুন, হাবিবা খাতুন, শাহনাজ পারভীন, আসমা খাতুন ও আফেরোজা আক্তার। এদের বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। মাদ্রাসাটিতে ছাত্র ও ছাত্রী থাকলেও শুধুমাত্র ছাত্রীরাই এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ছাত্রÑছাত্রীদের মধ্যে এখন এ রোগের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।
মাদ্রাসা সূত্র জানায়, গত সোমবার ক্লাস চলাকালীন হঠাৎ করেই অষ্টম শ্রেণির ১০ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদেরকে মাথায় পানি ঢেলে সুস্থ করে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।  মঙ্গলবার একই ভাবে সপ্তম শ্রেণির আট ছাত্রী আবারও অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদেরকেও ম্থাায় পানি ঢেলে সুস্থ করে তোলা হয়। মাদ্রাসার অন্য ছাত্রÑছাত্রীদের মধ্যে যাতে আতঙ্ক না ছড়ায় এজন্য ওদিন ছুটি দিয়ে সকলকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। বিষয়টি ওইদিনই শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়। বুধবারও ৮ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। যাদের মধ্যে মঙ্গলবার অসুস্থ হয়ে পড়া তিনজনও ছিলো।
মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক ইমদাদুল হক জানান, বুধবার সকালেই উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পারমীস সুলতানা রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের দুজন মেডিকেল অফিসারকে সঙ্গে নিয়ে মাদ্রাসায় যান। এ্যসেম্বলী চলাকালীন তাদের সামনেই ৮জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক এদেরকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা করা হয়। ওই সময় আফরোজা নামের এক ছাত্রী তার সহপাঠিদের মাথায় পানি ঢালছিল। পরে সেও অসুস্থ হয়ে পড়ে। শিক্ষকদের সুশ্রুষায় আট ছাত্রী সুস্থ হলেও বাকী পাঁচ জন সুস্থ না হওয়ায় তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি আরও জানান, তাদের মাদ্রাসায় ছাত্রÑছাত্রী পড়াশোনা করে। তবে শুধুমাত্র ছাত্রীরাই এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে গিয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জরুরী বিভাগে চিকিৎসাধীন ছাত্রীরা ছটফট করছে। অক্সিজেন দিয়ে তাদেরকে সুস্থ করার চেষ্টা চলছে। কেউ কেউ সেই অক্সিজেন খুলে ফেলার চেষ্টা করছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার আফিফা সুলতানা জানান, এ রোগের নাম ‘মাস সাইকোসিস’। বিশেষত টেনশনের কারণে এ রোগ হয়। এবং এটা হলে শরীরে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা কমে যায়। হাত পা ঠান্ডা হয়ে আসে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পারমীস সুলতানা বলেন, বিষয়টি রাজবাড়ীর সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে। আক্রান্ত ছাত্রীদের বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীর বিচাত্রা মাদ্রাসায় ‘মাস সাইকোসিস’ রোগে ৩ দিনে ২২ ছাত্রী আক্রান্ত

প্রকাশের সময় : 08:37:30 pm, Wednesday, 8 February 2017

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ ইউনিয়নের বিচাত্রা ফাজিল মাদ্রাসায় ‘মাস সাইকোসিস’ নামক রোগে গত তিন দিনে ২২ ছাত্রী আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে বুধবার সকালে পাঁচ জনকে  রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছাত্রীরা হলো মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী কেয়া খাতুন, হাবিবা খাতুন, শাহনাজ পারভীন, আসমা খাতুন ও আফেরোজা আক্তার। এদের বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। মাদ্রাসাটিতে ছাত্র ও ছাত্রী থাকলেও শুধুমাত্র ছাত্রীরাই এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ছাত্রÑছাত্রীদের মধ্যে এখন এ রোগের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।
মাদ্রাসা সূত্র জানায়, গত সোমবার ক্লাস চলাকালীন হঠাৎ করেই অষ্টম শ্রেণির ১০ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদেরকে মাথায় পানি ঢেলে সুস্থ করে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।  মঙ্গলবার একই ভাবে সপ্তম শ্রেণির আট ছাত্রী আবারও অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদেরকেও ম্থাায় পানি ঢেলে সুস্থ করে তোলা হয়। মাদ্রাসার অন্য ছাত্রÑছাত্রীদের মধ্যে যাতে আতঙ্ক না ছড়ায় এজন্য ওদিন ছুটি দিয়ে সকলকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। বিষয়টি ওইদিনই শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়। বুধবারও ৮ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। যাদের মধ্যে মঙ্গলবার অসুস্থ হয়ে পড়া তিনজনও ছিলো।
মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক ইমদাদুল হক জানান, বুধবার সকালেই উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পারমীস সুলতানা রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের দুজন মেডিকেল অফিসারকে সঙ্গে নিয়ে মাদ্রাসায় যান। এ্যসেম্বলী চলাকালীন তাদের সামনেই ৮জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক এদেরকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা করা হয়। ওই সময় আফরোজা নামের এক ছাত্রী তার সহপাঠিদের মাথায় পানি ঢালছিল। পরে সেও অসুস্থ হয়ে পড়ে। শিক্ষকদের সুশ্রুষায় আট ছাত্রী সুস্থ হলেও বাকী পাঁচ জন সুস্থ না হওয়ায় তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি আরও জানান, তাদের মাদ্রাসায় ছাত্রÑছাত্রী পড়াশোনা করে। তবে শুধুমাত্র ছাত্রীরাই এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে গিয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জরুরী বিভাগে চিকিৎসাধীন ছাত্রীরা ছটফট করছে। অক্সিজেন দিয়ে তাদেরকে সুস্থ করার চেষ্টা চলছে। কেউ কেউ সেই অক্সিজেন খুলে ফেলার চেষ্টা করছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার আফিফা সুলতানা জানান, এ রোগের নাম ‘মাস সাইকোসিস’। বিশেষত টেনশনের কারণে এ রোগ হয়। এবং এটা হলে শরীরে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা কমে যায়। হাত পা ঠান্ডা হয়ে আসে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পারমীস সুলতানা বলেন, বিষয়টি রাজবাড়ীর সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে। আক্রান্ত ছাত্রীদের বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।