Dhaka 1:09 am, Friday, 9 December 2022

ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরঃ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হচ্ছে শিক্ষার্থীরা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:46:07 pm, Sunday, 5 February 2017
  • / 1313 জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার ছাত্রÑছাত্রীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে রাজবাড়ীতে ২২ দিন ব্যাপী শুরু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের প্রদর্শনী। এরই অংশ হিসেবে শনিবার রাজবাড়ী আরএসকে ইনস্টিটিউশনে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে এ প্রদর্শনী। ভ্রাম্যমাণ জাদুঘরের মাধ্যমে সত্যিকার অর্থেই ছাত্ররা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হচ্ছে।
ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর সূত্র জানায়,  শিক্ষা কর্মসূচীর অংশ হিসেবে আগামি ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রাজবাড়ী জেলার ২৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাদুঘরের প্রদর্শন করা হবে। এছাড়া ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ঘটে যাওয়া ঘটনাবলীর উপর একটি প্রামাণ্য চিত্রও দেখানো হচ্ছে। ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে প্রাচীণকাল থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত বিভিন্ন দলিলাদি ও স্মারক রয়েছে। যা দেখে বর্তমান প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে স্বচ্ছ একটি ধারণা পাবে। মানবাধিকার ও শান্তি সম্পর্কিত কিছু লিফলেট ও স্থির চিত্রও প্রদর্শন করা হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর দেখার পর শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ দেয়া হয়। শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধ দেখেছে এমন কারো কাছ থেকে ঘটনাবলী শুনে রচনা লিখবে। যা পরবর্তীতে বই আকারে প্রকাশ পাবে। শিক্ষার্থীদের লেখার স্বীকৃতিও দেয়া হবে। যেসব শিক্ষার্থী মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর প্রদর্শন করেছে তাদেরকে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ ও একটি মুক্তিযুদ্ধের অ্যলবাম প্রদান করা হবে।
আরএসকে ইনস্টিটিউশনের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র হিমেল, শাকিল ব্যাপারী, তানজিল সহ বেশ কয়েকজন জানালো তাদের অনুভূতির কথা। ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর দেখে তারা মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছে। যা তারা আগে কখনও জানতো না। তারা অনুভব করেছে মুক্তিযোদ্ধারা দেশের জন্য কতটা ত্যাগ স্বীকার করেছে।
ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের শিক্ষা কর্মসূচী  সমন্বয়কারী রণজিৎ কুমার বলেন, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার ছাত্রÑছাত্রীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত। এই কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরঃ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হচ্ছে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশের সময় : 07:46:07 pm, Sunday, 5 February 2017

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার ছাত্রÑছাত্রীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে রাজবাড়ীতে ২২ দিন ব্যাপী শুরু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের প্রদর্শনী। এরই অংশ হিসেবে শনিবার রাজবাড়ী আরএসকে ইনস্টিটিউশনে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে এ প্রদর্শনী। ভ্রাম্যমাণ জাদুঘরের মাধ্যমে সত্যিকার অর্থেই ছাত্ররা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হচ্ছে।
ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর সূত্র জানায়,  শিক্ষা কর্মসূচীর অংশ হিসেবে আগামি ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রাজবাড়ী জেলার ২৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাদুঘরের প্রদর্শন করা হবে। এছাড়া ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ঘটে যাওয়া ঘটনাবলীর উপর একটি প্রামাণ্য চিত্রও দেখানো হচ্ছে। ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে প্রাচীণকাল থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত বিভিন্ন দলিলাদি ও স্মারক রয়েছে। যা দেখে বর্তমান প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে স্বচ্ছ একটি ধারণা পাবে। মানবাধিকার ও শান্তি সম্পর্কিত কিছু লিফলেট ও স্থির চিত্রও প্রদর্শন করা হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর দেখার পর শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ দেয়া হয়। শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধ দেখেছে এমন কারো কাছ থেকে ঘটনাবলী শুনে রচনা লিখবে। যা পরবর্তীতে বই আকারে প্রকাশ পাবে। শিক্ষার্থীদের লেখার স্বীকৃতিও দেয়া হবে। যেসব শিক্ষার্থী মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর প্রদর্শন করেছে তাদেরকে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ ও একটি মুক্তিযুদ্ধের অ্যলবাম প্রদান করা হবে।
আরএসকে ইনস্টিটিউশনের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র হিমেল, শাকিল ব্যাপারী, তানজিল সহ বেশ কয়েকজন জানালো তাদের অনুভূতির কথা। ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর দেখে তারা মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছে। যা তারা আগে কখনও জানতো না। তারা অনুভব করেছে মুক্তিযোদ্ধারা দেশের জন্য কতটা ত্যাগ স্বীকার করেছে।
ভ্রাম্যমাণ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের শিক্ষা কর্মসূচী  সমন্বয়কারী রণজিৎ কুমার বলেন, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার ছাত্রÑছাত্রীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত। এই কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে।