Dhaka ০৬:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণধর্ষণের শিকার ৯ বছরের শিশু \ গ্রেপ্তার ১

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০১:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
  • / ১০৩৪ জন সংবাদটি পড়েছেন

 ছেড়া জুতা সেলাই দেওয়ার কথা বলে ৯ বছরের শিশুকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা। গত ১২ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের বিকয়া বাজারে। এ ঘটনায় শিশুর মা বাদী হয়ে সোমবার কালুখালী থানায় দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আসামিরা হলো একই ইউনিয়নের চরাখালী গ্রামের হাসমত বিশ^াসের ছেলে কুরবান বিশ^াস(৪০) ও আলমডাঙ্গা গ্রামের মৃত আবু বক্কর মোল্লার ছেলে ইয়াছিন মোল্লা(৪৫)। এদের মধ্যে পুলিশ কুরবানকে গ্রেপ্তার করেছে। বিকয়া বাজারে তার লেপতোষকের দোকান রয়েছে। ঘটনার পর থেকে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে শিশুটির চোখেমুখে।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, আসামি কুরবান তার দুসম্পর্কের চাচা। গত শুক্রবার দুপুরে তার মেয়ে নানা বাড়ি বেড়াতে যাচ্ছিল। পথে তার জুতা ছিড়ে গেলে জুতা হাতে নিয়ে হাঁটতে থাকে। কুরবানের দোকানের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তার জুতা সেলাই করে দেওয়ার কথা বলে ডেকে নেয়। এরপর লেপ তোষকের আড়ালে নিয়ে কুরবান ও ইয়াছিন জোড়পূর্বক ধর্ষণ করে। ওই সময় তার মেয়ের চিৎকারে অন্যান্য ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এসে তার মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌছে দেয়।

এদিকে মেয়েটির চোখে মুখে এখনও আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনার কথা  বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ছে।

কালুখালী থানার ওসি আলমগীর হুসাইন জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ মামলার ১ নং আসামি কুরবান বিশ^াসকে গ্রেপ্তার করেছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

গণধর্ষণের শিকার ৯ বছরের শিশু \ গ্রেপ্তার ১

প্রকাশের সময় : ০৭:০১:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

 ছেড়া জুতা সেলাই দেওয়ার কথা বলে ৯ বছরের শিশুকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা। গত ১২ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের বিকয়া বাজারে। এ ঘটনায় শিশুর মা বাদী হয়ে সোমবার কালুখালী থানায় দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আসামিরা হলো একই ইউনিয়নের চরাখালী গ্রামের হাসমত বিশ^াসের ছেলে কুরবান বিশ^াস(৪০) ও আলমডাঙ্গা গ্রামের মৃত আবু বক্কর মোল্লার ছেলে ইয়াছিন মোল্লা(৪৫)। এদের মধ্যে পুলিশ কুরবানকে গ্রেপ্তার করেছে। বিকয়া বাজারে তার লেপতোষকের দোকান রয়েছে। ঘটনার পর থেকে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে শিশুটির চোখেমুখে।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, আসামি কুরবান তার দুসম্পর্কের চাচা। গত শুক্রবার দুপুরে তার মেয়ে নানা বাড়ি বেড়াতে যাচ্ছিল। পথে তার জুতা ছিড়ে গেলে জুতা হাতে নিয়ে হাঁটতে থাকে। কুরবানের দোকানের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তার জুতা সেলাই করে দেওয়ার কথা বলে ডেকে নেয়। এরপর লেপ তোষকের আড়ালে নিয়ে কুরবান ও ইয়াছিন জোড়পূর্বক ধর্ষণ করে। ওই সময় তার মেয়ের চিৎকারে অন্যান্য ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এসে তার মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌছে দেয়।

এদিকে মেয়েটির চোখে মুখে এখনও আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনার কথা  বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ছে।

কালুখালী থানার ওসি আলমগীর হুসাইন জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ মামলার ১ নং আসামি কুরবান বিশ^াসকে গ্রেপ্তার করেছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।