Dhaka ১২:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১০৫৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ফকীর জব্বার-শামীমা মুনমুন পরিষদ। সোমবার বিকেলে রাজবাড়ী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা ভোট পুন গণনার জোর দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেক্রেটারী পদপ্রার্থী শামীমা আক্তার মুনমুন বলেন, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। ২০২০ সালের নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে সেক্রেটারী নির্বাচিত হয়ে অতি যতœসহকারে প্রতিটি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছেন। গত ২ ডিসেম্বর শনিবার রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ২টি কেন্দ্রের ভোট গণনায় তিনি মাত্র ৩৪ ভোটে পিছিয়ে ছিলেন। ওই সময় তার পোলিং এজেন্ট ভোট পুন গণনার দাবি জানালে একটি কেন্দ্রের মাত্র পাঁচটি বান্ডিল পুনঃ গণনা করা হয়। এতেই দেখা যায়, তার (শামীমা আক্তার মুনমুন) পক্ষের সীল দেওয়া ভোট প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীর বান্ডিলে আছে। এছাড়া প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীর বান্ডিলে সাদা ব্যালটও পাওয়া গেছে। ভোট পুনঃ গণনার পর তার পক্ষে ২৭টি ভোট যোগ হয়। তার পোলিং এজেন্টরা অপর কেন্দ্রের ভোটও পুনঃ গণনার দাবি তোলেন। কিন্তু ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা তা উপেক্ষা করে একতরফাভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। তার কোনো পোলিং এজেন্ট ফলাফলের শীটে স্বাক্ষর করেননি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন নবনির্বাচিত সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, অ্যড. সুফিয়া খান রেখা, নির্বাচনে দায়িত্বদ পালনকারী পোলিং এজেন্টগণ।

এবিষয়ে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী ইউনিটের নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী প্রধান নির্বাচন কমিশনার সৈয়দ সিদ্দিকুর রহমান জানান, একটি কেন্দ্রে আপত্তি দেওয়ার পর সেখানে ভোট পুনঃ গণনা করা হয়েছে। অপর কেন্দ্রে ভোট গণনার পর তাদের পোলিং এজেন্টরা স্বাক্ষর করে দিয়েছে। যেকারণে তাদের আবেদন গ্রহণ করা হয়নি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

 

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ফকীর জব্বার-শামীমা মুনমুন পরিষদ। সোমবার বিকেলে রাজবাড়ী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা ভোট পুন গণনার জোর দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেক্রেটারী পদপ্রার্থী শামীমা আক্তার মুনমুন বলেন, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। ২০২০ সালের নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে সেক্রেটারী নির্বাচিত হয়ে অতি যতœসহকারে প্রতিটি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছেন। গত ২ ডিসেম্বর শনিবার রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ২টি কেন্দ্রের ভোট গণনায় তিনি মাত্র ৩৪ ভোটে পিছিয়ে ছিলেন। ওই সময় তার পোলিং এজেন্ট ভোট পুন গণনার দাবি জানালে একটি কেন্দ্রের মাত্র পাঁচটি বান্ডিল পুনঃ গণনা করা হয়। এতেই দেখা যায়, তার (শামীমা আক্তার মুনমুন) পক্ষের সীল দেওয়া ভোট প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীর বান্ডিলে আছে। এছাড়া প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীর বান্ডিলে সাদা ব্যালটও পাওয়া গেছে। ভোট পুনঃ গণনার পর তার পক্ষে ২৭টি ভোট যোগ হয়। তার পোলিং এজেন্টরা অপর কেন্দ্রের ভোটও পুনঃ গণনার দাবি তোলেন। কিন্তু ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা তা উপেক্ষা করে একতরফাভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। তার কোনো পোলিং এজেন্ট ফলাফলের শীটে স্বাক্ষর করেননি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন নবনির্বাচিত সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, অ্যড. সুফিয়া খান রেখা, নির্বাচনে দায়িত্বদ পালনকারী পোলিং এজেন্টগণ।

এবিষয়ে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী ইউনিটের নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী প্রধান নির্বাচন কমিশনার সৈয়দ সিদ্দিকুর রহমান জানান, একটি কেন্দ্রে আপত্তি দেওয়ার পর সেখানে ভোট পুনঃ গণনা করা হয়েছে। অপর কেন্দ্রে ভোট গণনার পর তাদের পোলিং এজেন্টরা স্বাক্ষর করে দিয়েছে। যেকারণে তাদের আবেদন গ্রহণ করা হয়নি।