Dhaka ০৬:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তরমুজের আদল বানিয়ে গাঁজা পাচারের চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : ০৯:২০:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩
  • / ১০৯৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

  তরমুজের আদল তৈরি করে গাঁজা পাচার করতো মামুন মিয়া। অবশেষে রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশের কাছে ধরা পড়েছে সে। শনিবার বেলা ১১টার দিকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের নিমতলা এলাকা থেকে তরমুজের আদলে প্যাকেট করা চার কেজি গাঁজাসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার জয়পুর এলাকার কবির মিয়ার ছেলে।

রাজবাড়ী ডিবি সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের নিমতলা এলাকায় চেকপোস্ট বসানো হয়। বেশ কয়েকটি বাসে তল্লাশী চালানোর পর ফরিদপুর থেকে রাজবাড়ীগামী একটি লোকাল বাসে তল্লাশী চালানোর সময় তরমুজ আকৃতির গাঁজার প্যাকেটসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, তাদের কাছে খবর ছিল তরমুজের ভেতরে গাঁজা পাচার করা হচ্ছে। রাজবাড়ীগামী লোকাল বাসে এক যাত্রীর কাছে পলিথিনের ব্যাগ দেখে সন্দেহ হওয়ায় জিজ্ঞেস করলে সে জানায় ভেতরে তরমুজ। আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছে। ওই বস্তুটি হাতে নেওয়ার পরও মনে হচ্ছিল তনমুজ। ওজনও বেশ এবং শক্ত। পরে পলিথিন খোলার পর দেখা যায়, স্কচ টেপ দিয়ে সুন্দর করে মোড়ানো একটি প্যাকেট। সেটি খোলার পর বের হয়ে পড়ে চার কেজি গাঁজা। তিনি আরও জানান, ওই ব্যক্তি এভাবেই দেশের বিভিন্ন স্থানে গাঁজা সরবরাহ করে। এই গাঁজা নিয়ে সে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া যাচ্ছিল। তার নামে দেশের বিভিন্ন থানায় বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। গাঁজাসহ আটকের ঘটনায় রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

তরমুজের আদল বানিয়ে গাঁজা পাচারের চেষ্টা

প্রকাশের সময় : ০৯:২০:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

  তরমুজের আদল তৈরি করে গাঁজা পাচার করতো মামুন মিয়া। অবশেষে রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশের কাছে ধরা পড়েছে সে। শনিবার বেলা ১১টার দিকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের নিমতলা এলাকা থেকে তরমুজের আদলে প্যাকেট করা চার কেজি গাঁজাসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার জয়পুর এলাকার কবির মিয়ার ছেলে।

রাজবাড়ী ডিবি সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের নিমতলা এলাকায় চেকপোস্ট বসানো হয়। বেশ কয়েকটি বাসে তল্লাশী চালানোর পর ফরিদপুর থেকে রাজবাড়ীগামী একটি লোকাল বাসে তল্লাশী চালানোর সময় তরমুজ আকৃতির গাঁজার প্যাকেটসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, তাদের কাছে খবর ছিল তরমুজের ভেতরে গাঁজা পাচার করা হচ্ছে। রাজবাড়ীগামী লোকাল বাসে এক যাত্রীর কাছে পলিথিনের ব্যাগ দেখে সন্দেহ হওয়ায় জিজ্ঞেস করলে সে জানায় ভেতরে তরমুজ। আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছে। ওই বস্তুটি হাতে নেওয়ার পরও মনে হচ্ছিল তনমুজ। ওজনও বেশ এবং শক্ত। পরে পলিথিন খোলার পর দেখা যায়, স্কচ টেপ দিয়ে সুন্দর করে মোড়ানো একটি প্যাকেট। সেটি খোলার পর বের হয়ে পড়ে চার কেজি গাঁজা। তিনি আরও জানান, ওই ব্যক্তি এভাবেই দেশের বিভিন্ন স্থানে গাঁজা সরবরাহ করে। এই গাঁজা নিয়ে সে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া যাচ্ছিল। তার নামে দেশের বিভিন্ন থানায় বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। গাঁজাসহ আটকের ঘটনায় রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা হয়েছে।