Dhaka ০৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে কৃষকের ৭টি বসতঘরে হামলা ভাংচুরের অভিযোগে মামলা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৪৪:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২১
  • / ১৪২২ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ঘিকমলা গ্রামের কৃষক মোতালেব হোসেনের সাতটি বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুরের অভিযোগে বালিয়াকান্দি থানায় মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক মোতালেব হোসেন বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলো আলিম, মিলন, মামুন, শহিদ, সাইদ, সোহেল, সালাম, জামির, লুৎফর, সেতু, রশিদ, সাবু, মফিজ, আব্দুল, ফজল, বাকু, আছমত প্রমুখ। এদের সবার বাড়ি একই গ্রামে।

মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, গত বুধবার তার ক্ষেতের পেঁয়াজ নষ্ট করা নিয়ে প্রতিবেশি আলিমের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন শতাধিক লোক তার বাড়িতে হামলা চালিয়ে সাতটি বসতঘর ভাংচুর ও ঘরে থাকা মালামাল লুট করে।

মোতালেব হোসেন জানান, হামলাকারীরা তার বাবার কবরটিও ভেঙে ফেলেছে। প্রাণভয়ে বাড়ি থেকে সবাই তখন পালিয়ে যান। পরে খবর পেয়ে বালিয়াকান্দি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, হামলা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা হয়েছে। পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

অভিযুক্ত আলিমের মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হলে তার স্ত্রী ফোন ধরে জানান, সে বাইরে আছে। পরে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও ফোন রিসিভ করেননি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে কৃষকের ৭টি বসতঘরে হামলা ভাংচুরের অভিযোগে মামলা

প্রকাশের সময় : ০৬:৪৪:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২১

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ঘিকমলা গ্রামের কৃষক মোতালেব হোসেনের সাতটি বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুরের অভিযোগে বালিয়াকান্দি থানায় মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক মোতালেব হোসেন বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলো আলিম, মিলন, মামুন, শহিদ, সাইদ, সোহেল, সালাম, জামির, লুৎফর, সেতু, রশিদ, সাবু, মফিজ, আব্দুল, ফজল, বাকু, আছমত প্রমুখ। এদের সবার বাড়ি একই গ্রামে।

মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, গত বুধবার তার ক্ষেতের পেঁয়াজ নষ্ট করা নিয়ে প্রতিবেশি আলিমের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন শতাধিক লোক তার বাড়িতে হামলা চালিয়ে সাতটি বসতঘর ভাংচুর ও ঘরে থাকা মালামাল লুট করে।

মোতালেব হোসেন জানান, হামলাকারীরা তার বাবার কবরটিও ভেঙে ফেলেছে। প্রাণভয়ে বাড়ি থেকে সবাই তখন পালিয়ে যান। পরে খবর পেয়ে বালিয়াকান্দি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, হামলা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা হয়েছে। পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

অভিযুক্ত আলিমের মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হলে তার স্ত্রী ফোন ধরে জানান, সে বাইরে আছে। পরে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও ফোন রিসিভ করেননি।