Dhaka ০৭:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায়…

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:২৩:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০
  • / ১২৯৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন দুলালী রানী বালা নামে এক গৃহবধূ। রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার সদর ইউনিয়নের  বকচর গ্রামে রোববার এ ঘটনা ঘটে। সে একই গ্রামের বিপুল কুমার বালার স্ত্রী।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, শনিবার গৃহবধূ দুলালী পূজার শাড়ি কিনতে তার স্বামীর সাথে বালিয়াকান্দি বাজারে যান। বাড়িতে এসে শাড়িটি পছন্দ হয়নি বলে সেটি তার স্বামীকে ফেরত দিয়ে নতুন আরেকটি শাড়ি আনতে বলে। কিন্তু স্বামী বিপুল শাড়িটি না নিয়ে বাজারে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পরে দুলালী তার স্বামীকে ফোন করে বলে; আমি আত্মহত্যা করব। একথা শুনে স্বামী বিপুল দ্রুত বাজার থেকে বাড়ি ফিরে দরজা ভেঙে দুলালীকে ফ্যানের  সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানেও অবস্থার অবনতি হওয়ায় রোববার সকালে তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়। ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান দুলালী।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায়…

প্রকাশের সময় : ০৯:২৩:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন দুলালী রানী বালা নামে এক গৃহবধূ। রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার সদর ইউনিয়নের  বকচর গ্রামে রোববার এ ঘটনা ঘটে। সে একই গ্রামের বিপুল কুমার বালার স্ত্রী।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, শনিবার গৃহবধূ দুলালী পূজার শাড়ি কিনতে তার স্বামীর সাথে বালিয়াকান্দি বাজারে যান। বাড়িতে এসে শাড়িটি পছন্দ হয়নি বলে সেটি তার স্বামীকে ফেরত দিয়ে নতুন আরেকটি শাড়ি আনতে বলে। কিন্তু স্বামী বিপুল শাড়িটি না নিয়ে বাজারে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পরে দুলালী তার স্বামীকে ফোন করে বলে; আমি আত্মহত্যা করব। একথা শুনে স্বামী বিপুল দ্রুত বাজার থেকে বাড়ি ফিরে দরজা ভেঙে দুলালীকে ফ্যানের  সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানেও অবস্থার অবনতি হওয়ায় রোববার সকালে তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়। ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান দুলালী।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারেকুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। পূজার শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।