Dhaka ১২:৩০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাংশায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আ’লীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩৭, বিপুল পরিমাণ অস্ত্রগুলি উদ্ধার

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৫৪:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
  • / ৩৬৯১ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥  ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পাংশায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৩৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্রগুলি উদ্ধার করা হয়। রাজবাড়ীর পাংশা থানা ও ডিবি পুলিশ মঙ্গলবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার কসবামাজাইল ্ইউনিয়নের সুবর্ণখোলা ঈদগাহ মাঠ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কসবামাজাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান পিন্টু জোয়ার্দার, কসবামজাইল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি জজ আলী বিশ^াস, তার দুই ছেলে মতিন বিশ^াস, বদিয়ার বিশ^াস অন্যতম। উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে দুইটি ওয়ান শুটারগান, তিনটি কার্তুজ, নয়টি চাপাতি, ছয়টি হাসুয়া, চারটি ছোরা, দুইটি রামদা, একটি  দা, একটি ভুজালি, দুইটি জিআই পাইপ, একটি লোহার রড।

গ্রেপ্তার অন্যদের মধ্যে রয়েছে সোহরাব, শরিফুল ইসলাম, ফয়জুর রহমান লালটু, রফিকুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, তৈয়বুর রহমান, আইয়ুব মোল্লা, বাববন মোল্লা, পান্না খানম উকিল খান, আনারুল খান, সেলিম মোল্লা, সোহান মোল্লা, সোহাগ হোসেন, ফজলুল জোয়ার্দার, জিল্লু মোল্লা, দিপু জোয়ার্দার, র্জ্জাাক জোয়র্দার, লাল চাঁদ জোয়ার্দার, তুহিন বিশ^াস, জাকির বিশ^াস, মিন্টু মন্ডল, ফরিদ মন্ডল, মাসুদ রানা, সাহেব আলী খান, আজিম মন্ডল, মুক্তি খান, কামরুল খান, আকমল মন্ডল, মামুন বিশ^াস জাহিদ খান ও আহসান হাবীব। এবার বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। এদের মধ্যে বেশির ভাগ আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত বলে জানা গেছে।

পাংশা থানার ওসি মো. শাহাদত হোসেন জানান, রাত্রিকালীন টহল ডিউটিকালে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে সুবর্ণখোলা ঈদগাহ মাঠে ৪০/৪৫ জন সন্ত্রাসী একত্রিত হয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এখবর পেয়ে পাংশা থানা ও ডিবি পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে চারপাশ ঘেরাও করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি ওমর শরীফ জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে ৩০ জনই কসবমাজাইলে সংঘটিত আসাদুল হত্যজা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পাংশায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আ’লীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩৭, বিপুল পরিমাণ অস্ত্রগুলি উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৪:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥  ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পাংশায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৩৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্রগুলি উদ্ধার করা হয়। রাজবাড়ীর পাংশা থানা ও ডিবি পুলিশ মঙ্গলবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার কসবামাজাইল ্ইউনিয়নের সুবর্ণখোলা ঈদগাহ মাঠ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কসবামাজাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান পিন্টু জোয়ার্দার, কসবামজাইল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি জজ আলী বিশ^াস, তার দুই ছেলে মতিন বিশ^াস, বদিয়ার বিশ^াস অন্যতম। উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে দুইটি ওয়ান শুটারগান, তিনটি কার্তুজ, নয়টি চাপাতি, ছয়টি হাসুয়া, চারটি ছোরা, দুইটি রামদা, একটি  দা, একটি ভুজালি, দুইটি জিআই পাইপ, একটি লোহার রড।

গ্রেপ্তার অন্যদের মধ্যে রয়েছে সোহরাব, শরিফুল ইসলাম, ফয়জুর রহমান লালটু, রফিকুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, তৈয়বুর রহমান, আইয়ুব মোল্লা, বাববন মোল্লা, পান্না খানম উকিল খান, আনারুল খান, সেলিম মোল্লা, সোহান মোল্লা, সোহাগ হোসেন, ফজলুল জোয়ার্দার, জিল্লু মোল্লা, দিপু জোয়ার্দার, র্জ্জাাক জোয়র্দার, লাল চাঁদ জোয়ার্দার, তুহিন বিশ^াস, জাকির বিশ^াস, মিন্টু মন্ডল, ফরিদ মন্ডল, মাসুদ রানা, সাহেব আলী খান, আজিম মন্ডল, মুক্তি খান, কামরুল খান, আকমল মন্ডল, মামুন বিশ^াস জাহিদ খান ও আহসান হাবীব। এবার বাড়ি একই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। এদের মধ্যে বেশির ভাগ আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত বলে জানা গেছে।

পাংশা থানার ওসি মো. শাহাদত হোসেন জানান, রাত্রিকালীন টহল ডিউটিকালে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে সুবর্ণখোলা ঈদগাহ মাঠে ৪০/৪৫ জন সন্ত্রাসী একত্রিত হয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এখবর পেয়ে পাংশা থানা ও ডিবি পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে চারপাশ ঘেরাও করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি ওমর শরীফ জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে ৩০ জনই কসবমাজাইলে সংঘটিত আসাদুল হত্যজা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।