Dhaka 3:20 pm, Friday, 3 February 2023

পাংশার সন্ত্রাসী রিপন অস্ত্রগুলিসহ গ্রেপ্তার

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 08:28:21 pm, Tuesday, 22 September 2020
  • / 1683 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা এলাকার দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী  মিজানুর রহমান রিপনকে অস্ত্রগুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে পাংশা শহরতলীর কুড়াপাড়ায় তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে  গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড কার্তুজ, দুই রাউন্ড পিস্তলের গুলি, তিনটি চাপাতি ও একটি হাতুড়ি। এসময় লাল রংয়ের একটি চোরাই পালসার মোটরসাইকেলও উদ্ধার করা হয়। রিপন  পাংশা উপজেলার কুড়াপাড়া গ্রামের আওয়াল হোসেনের ছেলে।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি ওমর শরীফ জানান, রিপনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী মূলক কর্মকান্ডের বহু অভিযোগ রয়েছে। বিষয়গুলো নিশ্চিত হওয়ার পর তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হয়। তার নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রগুলিসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় আরেক সন্ত্রাসী মনোয়ার হোসেন জনি পালিয়ে যায়। রিপনের বিরুদ্ধে দুটি  মারামারি ও একটি ডাকাতি মামলা রয়েছে। অস্ত্রসহ গ্রেপ্তারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। অপর আসামি মনোয়ার হোসেন জনিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে মিজানুর রহমান রিপন পাংশা শহর ও আশেপাশে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থোেক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাতো। প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থাকার কারণে কেউ মুখ খোলার সাহস পায়নি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

পাংশার সন্ত্রাসী রিপন অস্ত্রগুলিসহ গ্রেপ্তার

প্রকাশের সময় : 08:28:21 pm, Tuesday, 22 September 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা এলাকার দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী  মিজানুর রহমান রিপনকে অস্ত্রগুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে রাজবাড়ীর ডিবি পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে পাংশা শহরতলীর কুড়াপাড়ায় তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে  গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড কার্তুজ, দুই রাউন্ড পিস্তলের গুলি, তিনটি চাপাতি ও একটি হাতুড়ি। এসময় লাল রংয়ের একটি চোরাই পালসার মোটরসাইকেলও উদ্ধার করা হয়। রিপন  পাংশা উপজেলার কুড়াপাড়া গ্রামের আওয়াল হোসেনের ছেলে।

রাজবাড়ীর ডিবি ওসি ওমর শরীফ জানান, রিপনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী মূলক কর্মকান্ডের বহু অভিযোগ রয়েছে। বিষয়গুলো নিশ্চিত হওয়ার পর তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হয়। তার নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রগুলিসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় আরেক সন্ত্রাসী মনোয়ার হোসেন জনি পালিয়ে যায়। রিপনের বিরুদ্ধে দুটি  মারামারি ও একটি ডাকাতি মামলা রয়েছে। অস্ত্রসহ গ্রেপ্তারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। অপর আসামি মনোয়ার হোসেন জনিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে মিজানুর রহমান রিপন পাংশা শহর ও আশেপাশে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থোেক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাতো। প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থাকার কারণে কেউ মুখ খোলার সাহস পায়নি।