Dhaka 9:38 am, Sunday, 5 February 2023

রাজবাড়ীতে বকেয়া পাওনার দাবিতে পাট ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:55:20 pm, Sunday, 12 July 2020
  • / 1269 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ বিজেএমসির কাছে বকেয়া পাওনা টাকার দাবিতে রোববার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন করেছে রাজবাড়ীর পাট ব্যবসায়ীরা। রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসুচীতে বক্তৃতা করেন বানিবহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, রেজাউল করিম, কার্ত্তিক চন্দ্র কুন্ডু, চন্দন কুমার ভক্ত, প্রদীপ কুমার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিজেএমসির কাছে ২৬৪ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। রাজবাড়ীর দুই শতাধিক পাট ব্যবসায়ীর বিজেএমসির কাছে প্রায় ২০ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। বিজেএমসি ব্যবসায়ীদের এই টাকা পরিশোধ না করার কারণে পাট ব্যবসায়ীদের মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে।

বক্তারা আরো বলেন, রাজবাড়ী কৃষি প্রধান একটি জেলা। এই জেলায় অন্তত ৪৫ হাজার হেক্টর জমিতে পাট উৎপাদন হয়। কিন্তু পাট ব্যবসায়ীদের কাছে টাকা না থাকার কারণে কৃষকদের নিকট থেকে পাট ক্রয় করতে পারছে না। ফলে রাজবাড়ীর কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্থ্য হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের পাট ব্যবসায়ীদের টাকা পরিশোধের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন রাজবাড়ীর পাট ব্যবসায়ীরা। মানববন্ধন শেষে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করেন ব্যবসায়ীরা।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে বকেয়া পাওনার দাবিতে পাট ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

প্রকাশের সময় : 07:55:20 pm, Sunday, 12 July 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ বিজেএমসির কাছে বকেয়া পাওনা টাকার দাবিতে রোববার রাজবাড়ীতে মানববন্ধন করেছে রাজবাড়ীর পাট ব্যবসায়ীরা। রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসুচীতে বক্তৃতা করেন বানিবহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, রেজাউল করিম, কার্ত্তিক চন্দ্র কুন্ডু, চন্দন কুমার ভক্ত, প্রদীপ কুমার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিজেএমসির কাছে ২৬৪ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। রাজবাড়ীর দুই শতাধিক পাট ব্যবসায়ীর বিজেএমসির কাছে প্রায় ২০ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। বিজেএমসি ব্যবসায়ীদের এই টাকা পরিশোধ না করার কারণে পাট ব্যবসায়ীদের মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে।

বক্তারা আরো বলেন, রাজবাড়ী কৃষি প্রধান একটি জেলা। এই জেলায় অন্তত ৪৫ হাজার হেক্টর জমিতে পাট উৎপাদন হয়। কিন্তু পাট ব্যবসায়ীদের কাছে টাকা না থাকার কারণে কৃষকদের নিকট থেকে পাট ক্রয় করতে পারছে না। ফলে রাজবাড়ীর কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্থ্য হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের পাট ব্যবসায়ীদের টাকা পরিশোধের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন রাজবাড়ীর পাট ব্যবসায়ীরা। মানববন্ধন শেষে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করেন ব্যবসায়ীরা।