Dhaka ১২:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

করোনায় আক্রান্তের হতাশায় ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেয়া তপনের সৎকার করলো পূজা পরিষদ নেতৃবৃন্দ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৯:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুন ২০২০
  • / ১৬২৭ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন : করোনার ভয়ে লাশের কাছে যেতে চায়না কেউ। এ চিত্র বাংলাদেশ নয়, সারা বিশেরই। রাজবাড়ীতে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র। করোনায় আক্রান্ত হয়ে হতাশায় আত্মহননের পথ বেছে নেয়া তপন দত্তের মরদেহ সৎকার করেছে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
শুক্রবার বিকেলে তপন দত্তের গ্রামের বাড়ি লক্ষিকোল কালিবাড়ী এলাকায় তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। সনতিন ধর্মীয় রীতিতে দাহ করার প্রথা থাকলেও পরিবারের ইচ্ছায় তাকে সমাধি দেয়া হয় সেখানে। বৃষ্টি উপেক্ষা করেই পূজা পরিষদের নেতৃবৃন্দ সার্বক্ষণিক সমাধিস্থলে উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, শুক্রবার রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে তপনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার পর তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর সৎকারের সব দায়িত্ব নেয় জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ। অঝোর ধারায় বৃষ্টি নামছিল তখন। বৃষ্টি উপেক্ষা করে তার মৃতদেহ লক্ষিকোল কালিবাড়ী সমাধি সম্পন্ন করা হয়।
এসময় রাজবাড়ী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ্ত চক্রবত্তী কান্ত. যুগ্ম সম্পাদক স্বপন দাস. সদর থানা সভাপতি অরুণ সরকার. সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সমীর দাস. পৌর কমিটির সাধারন সম্পাদক বিপ্লব কুমার সাহা. যুগ্ম সম্পাদক গৌরাঙ্গ সরকার. কোষাধ্যক্ষ তন্ময় দাস. ও গোবিন্দ ঘোষ. সহ ০২ নং ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে তপন দত্ত ভাজনচালা মোড়ে নির্মাণাধীন একটি বাড়ির ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা করেন। আগের দিন তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পেশায় ব্যবসায়ী তপন দত্ত রাজবাড়ী পৌর এলাকার বিনোদপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

করোনায় আক্রান্তের হতাশায় ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেয়া তপনের সৎকার করলো পূজা পরিষদ নেতৃবৃন্দ

প্রকাশের সময় : ০৭:১৯:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুন ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন : করোনার ভয়ে লাশের কাছে যেতে চায়না কেউ। এ চিত্র বাংলাদেশ নয়, সারা বিশেরই। রাজবাড়ীতে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র। করোনায় আক্রান্ত হয়ে হতাশায় আত্মহননের পথ বেছে নেয়া তপন দত্তের মরদেহ সৎকার করেছে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
শুক্রবার বিকেলে তপন দত্তের গ্রামের বাড়ি লক্ষিকোল কালিবাড়ী এলাকায় তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। সনতিন ধর্মীয় রীতিতে দাহ করার প্রথা থাকলেও পরিবারের ইচ্ছায় তাকে সমাধি দেয়া হয় সেখানে। বৃষ্টি উপেক্ষা করেই পূজা পরিষদের নেতৃবৃন্দ সার্বক্ষণিক সমাধিস্থলে উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, শুক্রবার রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে তপনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার পর তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর সৎকারের সব দায়িত্ব নেয় জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ। অঝোর ধারায় বৃষ্টি নামছিল তখন। বৃষ্টি উপেক্ষা করে তার মৃতদেহ লক্ষিকোল কালিবাড়ী সমাধি সম্পন্ন করা হয়।
এসময় রাজবাড়ী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ্ত চক্রবত্তী কান্ত. যুগ্ম সম্পাদক স্বপন দাস. সদর থানা সভাপতি অরুণ সরকার. সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সমীর দাস. পৌর কমিটির সাধারন সম্পাদক বিপ্লব কুমার সাহা. যুগ্ম সম্পাদক গৌরাঙ্গ সরকার. কোষাধ্যক্ষ তন্ময় দাস. ও গোবিন্দ ঘোষ. সহ ০২ নং ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে তপন দত্ত ভাজনচালা মোড়ে নির্মাণাধীন একটি বাড়ির ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা করেন। আগের দিন তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পেশায় ব্যবসায়ী তপন দত্ত রাজবাড়ী পৌর এলাকার বিনোদপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।