Dhaka ০৫:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঋদ্ধ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগ : রাজবাড়ীর ৫১ পরিবার পেল খাদ্য সহায়তা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৫৩:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুন ২০২০
  • / ১৪৫৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন : করোনার দুর্যোগকালে রাজবাড়ীর অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ঢাকার ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন। ফা্‌উন্ডেশনটির উদ্যোগে রাজবাড়ী শহরের বিবেকানন্দ পল্লীর ৫১টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল, আটা, আলু ছাড়াও মাস্ক ও ডিটারজেন্ট সাবান দেয়া হয়েছে।

ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক কবি নেহাল আহমেদ ও সঞ্জয় ভৌমিকের তত্ত্বাবধানে বিবেকানন্দ পল্লীর বাসুদেব এর নেতৃত্বে এসব বিতরণ করা হয়েছে।

ঋদ্ধ ফাউন্ডেশনের কর্ণধার তৃষ্ণা সরকার জানান, তার অকাল প্রয়াত সন্তান ঋদ্ধ’র নামে ফাউন্ডেশনটি করা হয়েছে। শিশু কিশোরদের সৃজনশীল বিকাশের লক্ষ ও উদ্দেশ্য নিয়ে চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি ফাউন্ডেশনটির যাত্রা শুরু। বর্তমান বাস্তবতায় করোনা ভাইরাস নিয়ে মহাসংকটে রয়েছে বাংলাদেশ তথা সারাবিশ্ব। এই সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোকে কর্তব্য বলে মনে করি। যেকারণে জরুরী পদক্ষেপ আমরা সামাজিক কর্মকান্ড শুরু করি। অনাহারী মানুষের মুখে আমরা খাবার তুলে দিচ্ছি। রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে তিনি নিজে রান্না করে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করছেন। প্রতিদিন ৭০ থেকে ৮০ জন মানুষকে তিনি খাবার দিচ্ছেন।

হৃদয়ঙ্গম ঋদ্ধ ২০০২ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি  ঢাকার  মোহাম্মদপুরেই জন্মগ্রহণ করেন। মা- তৃষ্ণা সরকার, বাবা – সুগত ভট্টাচার্য নীলমণি।  অরণি বিদ্যালয় দিয়ে শিক্ষাজীবনের হাতেখড়ি হলেও নালন্দা বিদ্যালয়ে স্কুল জীবন শেষ করে।  বিদ্যালয় শেষ করেই ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল কলেজে ভর্তি হন। নালন্দা ও ছায়ানট ও শিকড় এর নিয়মিত শিক্ষার্থী থাকলেও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ছোট বেলা থেকে মায়ের হাত ধরেই আনাগোনা ছিলো ঋদ্ধর। ‘জিয়নকাঠি’ পরিবারের জুনিয়র সদস্যদের সবচেয়ে বড় ছিলো ঋদ্ধ। জীবন মানে যত সুন্দরভাবে সময় নষ্ট করার চেষ্টা করা, শিক্ষক শিল্পী স্বপন চৌধুরীর এই দীক্ষাকে ব্রত করে ১১ বছর বয়স থেকে আঁকা-গড়া আর শিউলি ভট্টাচার্য র কাছে নিয়মিত বেহালা শিখতো। ২০১৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর তারিখে ধানমণ্ডি লেকের ৩২ নং ব্রিজের তাকওয়া মসজিদ সংলগ্ন সিঁড়ি ঘাট দিয়ে শখের বশে সাঁতার কাটতে নেমে এক  পানিতে ডুবে অকালে প্রাণ হারান ঋদ্ধ।

ঋদ্ধ’র স্মৃতিকে অমর করে রাখতে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন।

্রএর ্বাআগে ড়ীর চিকিৎসক, পুলিশ, সাংবাদিকদের মাঝে ৭৫টি পিপিই পাঠিয়েছিল ঢাকার ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

ঋদ্ধ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগ : রাজবাড়ীর ৫১ পরিবার পেল খাদ্য সহায়তা

প্রকাশের সময় : ০৮:৫৩:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুন ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন : করোনার দুর্যোগকালে রাজবাড়ীর অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ঢাকার ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন। ফা্‌উন্ডেশনটির উদ্যোগে রাজবাড়ী শহরের বিবেকানন্দ পল্লীর ৫১টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল, আটা, আলু ছাড়াও মাস্ক ও ডিটারজেন্ট সাবান দেয়া হয়েছে।

ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক কবি নেহাল আহমেদ ও সঞ্জয় ভৌমিকের তত্ত্বাবধানে বিবেকানন্দ পল্লীর বাসুদেব এর নেতৃত্বে এসব বিতরণ করা হয়েছে।

ঋদ্ধ ফাউন্ডেশনের কর্ণধার তৃষ্ণা সরকার জানান, তার অকাল প্রয়াত সন্তান ঋদ্ধ’র নামে ফাউন্ডেশনটি করা হয়েছে। শিশু কিশোরদের সৃজনশীল বিকাশের লক্ষ ও উদ্দেশ্য নিয়ে চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি ফাউন্ডেশনটির যাত্রা শুরু। বর্তমান বাস্তবতায় করোনা ভাইরাস নিয়ে মহাসংকটে রয়েছে বাংলাদেশ তথা সারাবিশ্ব। এই সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোকে কর্তব্য বলে মনে করি। যেকারণে জরুরী পদক্ষেপ আমরা সামাজিক কর্মকান্ড শুরু করি। অনাহারী মানুষের মুখে আমরা খাবার তুলে দিচ্ছি। রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে তিনি নিজে রান্না করে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করছেন। প্রতিদিন ৭০ থেকে ৮০ জন মানুষকে তিনি খাবার দিচ্ছেন।

হৃদয়ঙ্গম ঋদ্ধ ২০০২ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি  ঢাকার  মোহাম্মদপুরেই জন্মগ্রহণ করেন। মা- তৃষ্ণা সরকার, বাবা – সুগত ভট্টাচার্য নীলমণি।  অরণি বিদ্যালয় দিয়ে শিক্ষাজীবনের হাতেখড়ি হলেও নালন্দা বিদ্যালয়ে স্কুল জীবন শেষ করে।  বিদ্যালয় শেষ করেই ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল কলেজে ভর্তি হন। নালন্দা ও ছায়ানট ও শিকড় এর নিয়মিত শিক্ষার্থী থাকলেও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ছোট বেলা থেকে মায়ের হাত ধরেই আনাগোনা ছিলো ঋদ্ধর। ‘জিয়নকাঠি’ পরিবারের জুনিয়র সদস্যদের সবচেয়ে বড় ছিলো ঋদ্ধ। জীবন মানে যত সুন্দরভাবে সময় নষ্ট করার চেষ্টা করা, শিক্ষক শিল্পী স্বপন চৌধুরীর এই দীক্ষাকে ব্রত করে ১১ বছর বয়স থেকে আঁকা-গড়া আর শিউলি ভট্টাচার্য র কাছে নিয়মিত বেহালা শিখতো। ২০১৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর তারিখে ধানমণ্ডি লেকের ৩২ নং ব্রিজের তাকওয়া মসজিদ সংলগ্ন সিঁড়ি ঘাট দিয়ে শখের বশে সাঁতার কাটতে নেমে এক  পানিতে ডুবে অকালে প্রাণ হারান ঋদ্ধ।

ঋদ্ধ’র স্মৃতিকে অমর করে রাখতে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন।

্রএর ্বাআগে ড়ীর চিকিৎসক, পুলিশ, সাংবাদিকদের মাঝে ৭৫টি পিপিই পাঠিয়েছিল ঢাকার ঋদ্ধ ফাউন্ডেশন।