Dhaka ০২:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অবরুদ্ধ পরিবারের বাড়িতে ঈদ উপহার নিয়ে বালিয়াকান্দি ইউএনও

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ১০:৩৪:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০
  • / ১৪৮৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন : ঈদের দিনেও বসে নেই বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম হেদায়েতুল ইসলাম। ঈদের নামাজ আদায় করেই ঈদ উপহার নিয়ে ছুটে গেছেন অবরুদ্ধ করা পরিবারের পাশে।

সোমবার ঈদের নামাযের পর সকাল ১০ টায় উপজেলার  জামালপুর ইউনিয়নের বাকছিরডাংগী গ্রামের অবরুদ্ধ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি, তার পরিবার ও  প্রতিবেশীদের  ০৬ টি পরিবারে ১০ টি শিশুসহ ২২ জন সদস্যকে এই ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়ে আসেন। এছাড়া জংগল ইউনিয়নের ১২ জন আক্রান্ত, প্রতিবেশি ১৯ টি পরিবার ও দুস্থদের মাঝেও পৌছে দেয়া হবে এমন উপহার।

উপহার প্যাকেটে ছিলো ১০ কেজি চাল, ২ কেজি মসুর ডাল,১ কেজি সেমাই,১ প্যাকেট লাচ্ছা, ১ কেজি তেল, ১ কেজি লবণ, ২ কেজি আলু, ১ কেজি বুটের ডাল, ৩ হালি ডিম, ২০০ গ্রাম পাউডার দুধ, ১ কেজি চিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুজ্জামান মনির, স্থানীয় ইউপি সদস্য ও করোনা প্রতিরোধ ওয়ার্ড কমিটির সদস্যগণ।

ইউএনও এ কে এম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, উপজেলায় করোনা আক্রান্ত ও পার্শ্ববর্তী লকডাউন করা  পরিবারগুলোকে ঈদ উপহার অর্থাৎ খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে এসেছি। তাদের ঘরে থেকে ঈদ করতে যেন সমস্যা  না হয় সে কারনে এই উদ্যোগ নেয়া হয়। বর্তমানে পরিস্থিতিতে আমাদের সবার উচিত ঘরে থাকা। এসময় তিনি বাসায় থাকাসহ, জরুরী প্রয়োজন ছাড়া জনসমাগম পরিহার করতে ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

অবরুদ্ধ পরিবারের বাড়িতে ঈদ উপহার নিয়ে বালিয়াকান্দি ইউএনও

প্রকাশের সময় : ১০:৩৪:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন : ঈদের দিনেও বসে নেই বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম হেদায়েতুল ইসলাম। ঈদের নামাজ আদায় করেই ঈদ উপহার নিয়ে ছুটে গেছেন অবরুদ্ধ করা পরিবারের পাশে।

সোমবার ঈদের নামাযের পর সকাল ১০ টায় উপজেলার  জামালপুর ইউনিয়নের বাকছিরডাংগী গ্রামের অবরুদ্ধ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি, তার পরিবার ও  প্রতিবেশীদের  ০৬ টি পরিবারে ১০ টি শিশুসহ ২২ জন সদস্যকে এই ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়ে আসেন। এছাড়া জংগল ইউনিয়নের ১২ জন আক্রান্ত, প্রতিবেশি ১৯ টি পরিবার ও দুস্থদের মাঝেও পৌছে দেয়া হবে এমন উপহার।

উপহার প্যাকেটে ছিলো ১০ কেজি চাল, ২ কেজি মসুর ডাল,১ কেজি সেমাই,১ প্যাকেট লাচ্ছা, ১ কেজি তেল, ১ কেজি লবণ, ২ কেজি আলু, ১ কেজি বুটের ডাল, ৩ হালি ডিম, ২০০ গ্রাম পাউডার দুধ, ১ কেজি চিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুজ্জামান মনির, স্থানীয় ইউপি সদস্য ও করোনা প্রতিরোধ ওয়ার্ড কমিটির সদস্যগণ।

ইউএনও এ কে এম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, উপজেলায় করোনা আক্রান্ত ও পার্শ্ববর্তী লকডাউন করা  পরিবারগুলোকে ঈদ উপহার অর্থাৎ খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে এসেছি। তাদের ঘরে থেকে ঈদ করতে যেন সমস্যা  না হয় সে কারনে এই উদ্যোগ নেয়া হয়। বর্তমানে পরিস্থিতিতে আমাদের সবার উচিত ঘরে থাকা। এসময় তিনি বাসায় থাকাসহ, জরুরী প্রয়োজন ছাড়া জনসমাগম পরিহার করতে ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।