Dhaka ০৭:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধান কাটতে গিয়ে মারা যাওয়া কৃষকের পরিবারকে সাহায্য দিলেন কৃষকলীগ নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী হক

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৫২:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মে ২০২০
  • / ১৫২১ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

জনতার আদালত অনলাইন : মানুষের  জন্য মানুষ। মানবতাই পরম ধর্ম। আবারও কৃষকের সাহায্যে এগিয়ে এসে সে কথা প্রমাণ করলেন কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী হক। বুধবার জেলার পাংশা উপজেলার প্রয়াত এক কৃষক পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা সহযোগিতা করেছেন তিনি।

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুরের চরঝিকুরী গ্রামের কৃষিশ্রমিক সাহিল খাঁ গত ২ মে তারখে বরিশাল জেলার আগৈলঝরা উপজেলায় ধান কাটতে গিয়ে স্ট্রোক করে ধান ক্ষেতেই মারা যান। বিষয়টি মিডিয়ার মাধ্যমে নুরে আলম সিদ্দিকী জানতে পারেন। কৃষক সাহিল খার দুটি শিশু সন্তান রয়েছে। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ছিলেন তিনি।

কৃষক সাহিল খার সাহায্যের জন্য স্থানীয়ভাবে যোগাযোগ করে তার স্ত্রী রোজিনা বেগমের হাতে ১০ হাজার টাকা তুলে দেয়া হয়।

নুরে আলম সিদ্দিকী হক জানান, কিছু ভাল কাজ করতে গেলে বাধা আসবেই। কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করবে। এসব বাধা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে তিনি মানুষের সেবা করে যাবেন। রাজনীতি মানুষের ভালোর জন্য একথা প্রমাণ করে যেতে চাই। তিনি বলেন, কৃষক এদেশের প্রাণ। কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। বর্তমানে দেশের ক্রান্তিকালে কৃষকের পাশে দাঁড়ানো সকলেরই কর্তব্য। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সে কর্তব্য পালন করছি মাত্র।

মানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

ধান কাটতে গিয়ে মারা যাওয়া কৃষকের পরিবারকে সাহায্য দিলেন কৃষকলীগ নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী হক

প্রকাশের সময় : ০৫:৫২:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মে ২০২০

 

জনতার আদালত অনলাইন : মানুষের  জন্য মানুষ। মানবতাই পরম ধর্ম। আবারও কৃষকের সাহায্যে এগিয়ে এসে সে কথা প্রমাণ করলেন কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী হক। বুধবার জেলার পাংশা উপজেলার প্রয়াত এক কৃষক পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা সহযোগিতা করেছেন তিনি।

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুরের চরঝিকুরী গ্রামের কৃষিশ্রমিক সাহিল খাঁ গত ২ মে তারখে বরিশাল জেলার আগৈলঝরা উপজেলায় ধান কাটতে গিয়ে স্ট্রোক করে ধান ক্ষেতেই মারা যান। বিষয়টি মিডিয়ার মাধ্যমে নুরে আলম সিদ্দিকী জানতে পারেন। কৃষক সাহিল খার দুটি শিশু সন্তান রয়েছে। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ছিলেন তিনি।

কৃষক সাহিল খার সাহায্যের জন্য স্থানীয়ভাবে যোগাযোগ করে তার স্ত্রী রোজিনা বেগমের হাতে ১০ হাজার টাকা তুলে দেয়া হয়।

নুরে আলম সিদ্দিকী হক জানান, কিছু ভাল কাজ করতে গেলে বাধা আসবেই। কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করবে। এসব বাধা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে তিনি মানুষের সেবা করে যাবেন। রাজনীতি মানুষের ভালোর জন্য একথা প্রমাণ করে যেতে চাই। তিনি বলেন, কৃষক এদেশের প্রাণ। কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। বর্তমানে দেশের ক্রান্তিকালে কৃষকের পাশে দাঁড়ানো সকলেরই কর্তব্য। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সে কর্তব্য পালন করছি মাত্র।

মানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।