Dhaka 11:16 am, Sunday, 5 February 2023

করোনা উপসর্গ নিয়ে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর এক নারীর মৃত্যু

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:54:10 pm, Thursday, 23 April 2020
  • / 1401 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ৫০ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দা।
দৌলতদিয়া যৌনপল্লী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, তিন-চার দিন ধরে জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর কমলা বাড়িওয়ালীর ৫০ বছর বয়সী এক ভাড়াটিয়া। বৃহস্পতিবার দুপুরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্থানীয়রা তাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এসময় তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। সেখানে নেয়ার সময় পথেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে তার মৃত্যুতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দাদের মধ্যে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক বিরাজ করছে।
গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসিফ মাহমুদ জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে ওই নারীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে দুপুরে তাকে স্থানীয়রা হাসপাতালে নিয়ে আসে। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ছাড়াও ওই নারী হৃদরোগে আক্রান্ত ছিল। পরীক্ষা সম্পন্ন হলে তিনি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ছিল কি না জানা যাবে।
এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু জানান, দেশে করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হওয়ার পর দৌলতদিয়া যৌনপল্লী প্রথমেই লকডাউন করা হয়। তবে মৃত নারী করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় যদি পজেটিভ আসে তবে ওই এলাকায় লকডাউন বাস্তবায়নে আরো কড়াকড়ি আরোপ করা হবে।

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

করোনা উপসর্গ নিয়ে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর এক নারীর মৃত্যু

প্রকাশের সময় : 07:54:10 pm, Thursday, 23 April 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ৫০ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দা।
দৌলতদিয়া যৌনপল্লী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, তিন-চার দিন ধরে জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর কমলা বাড়িওয়ালীর ৫০ বছর বয়সী এক ভাড়াটিয়া। বৃহস্পতিবার দুপুরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্থানীয়রা তাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এসময় তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। সেখানে নেয়ার সময় পথেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে তার মৃত্যুতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দাদের মধ্যে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক বিরাজ করছে।
গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসিফ মাহমুদ জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে ওই নারীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে দুপুরে তাকে স্থানীয়রা হাসপাতালে নিয়ে আসে। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ছাড়াও ওই নারী হৃদরোগে আক্রান্ত ছিল। পরীক্ষা সম্পন্ন হলে তিনি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ছিল কি না জানা যাবে।
এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু জানান, দেশে করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হওয়ার পর দৌলতদিয়া যৌনপল্লী প্রথমেই লকডাউন করা হয়। তবে মৃত নারী করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় যদি পজেটিভ আসে তবে ওই এলাকায় লকডাউন বাস্তবায়নে আরো কড়াকড়ি আরোপ করা হবে।