Dhaka ০৪:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্ব।।রাজবাড়ীর গঙ্গা প্রসাদপুরে দোকান ও বসতঘরে হামলা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৭:৪৫:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০
  • / ১৩৮৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ কবরস্থানের কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে রাজবাড়ীর মিজানপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপ্রসাদপুর বাজার ও আশপাশের বাড়ি ঘর সহ প্রায় ২০টি বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে দুবৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, দূবৃত্তরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ৮টি দোকান ঘরের টিনের বেড়া,আসবাবপত্র,ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অফিসকক্ষ ভেঙ্গে তছনছ করে। বাজরের দোকান ভাংগার পরে স্থানীয় আশপাশের ১২ টি বাড়িতেও ভাংচুর চালায় দূবৃত্তরা।এসময় ওই বাড়িঘরের টিনের বেড়া ,দরজা ,ঘরের ভেতরের আসবাবপত্র কুপিয়ে নষ্ট করে ফেলে। ভাংচুর হওয়া স্থানে দুটি গুলি খোসাও পাওয়া যায়।
৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো ঃ জহির মন্ডল বলেন,গঙ্গাপ্রসাদপুর অবস্থিত গোরস্থানের কমিটির পূর্বের সভাপতি ২ বছর আগে মৃত্যুবরন করেন। তা ছাড়া এই কমিটিতে আরো ৩ জন সদস্য না থাকার কারনে পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে নতুন কমিটি করার প্রস্তাব করা হয়। কিন্তু একটি পক্ষ এই কমিটি করতে বিরোধ সৃষ্টি করে আসছে। বাজার কমিটির সভাপতি আতিয়ার রহমান বলেন,যারা বাজারে এই হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে অতি শিঘ্রই পুলিশ প্রশাসন তাদের ধরে বিচারের আওতায় আনবে বলে জানান।
রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বপনকুমার মজুমদার বলেন,গোরস্থান ও পুকুর লিজ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয় এর পর সেখানে ভাংচুর করা হয়। এ ঘটনায় তিনি ঘটনাস্থলে গিয়েছেন এবং পরিস্থিতি শান্ত করেছেন। তবে দুই পক্ষ থেকে তাকে বলেছেন পরিবেশ শান্ত হলে তারা স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করবেন। আর এখন অভিযোগ পাননি পেলে তিনি তা আমলে নিবেন। আর স্থানীয় ভাবে মিমাংসা না হলে ভুক্তভোগীরা যদি মামলা দায়ের করতে চায় তাহলে তিনি মামলা নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবেন বলেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্ব।।রাজবাড়ীর গঙ্গা প্রসাদপুরে দোকান ও বসতঘরে হামলা

প্রকাশের সময় : ০৭:৪৫:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ কবরস্থানের কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে রাজবাড়ীর মিজানপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপ্রসাদপুর বাজার ও আশপাশের বাড়ি ঘর সহ প্রায় ২০টি বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে দুবৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, দূবৃত্তরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ৮টি দোকান ঘরের টিনের বেড়া,আসবাবপত্র,ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অফিসকক্ষ ভেঙ্গে তছনছ করে। বাজরের দোকান ভাংগার পরে স্থানীয় আশপাশের ১২ টি বাড়িতেও ভাংচুর চালায় দূবৃত্তরা।এসময় ওই বাড়িঘরের টিনের বেড়া ,দরজা ,ঘরের ভেতরের আসবাবপত্র কুপিয়ে নষ্ট করে ফেলে। ভাংচুর হওয়া স্থানে দুটি গুলি খোসাও পাওয়া যায়।
৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো ঃ জহির মন্ডল বলেন,গঙ্গাপ্রসাদপুর অবস্থিত গোরস্থানের কমিটির পূর্বের সভাপতি ২ বছর আগে মৃত্যুবরন করেন। তা ছাড়া এই কমিটিতে আরো ৩ জন সদস্য না থাকার কারনে পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে নতুন কমিটি করার প্রস্তাব করা হয়। কিন্তু একটি পক্ষ এই কমিটি করতে বিরোধ সৃষ্টি করে আসছে। বাজার কমিটির সভাপতি আতিয়ার রহমান বলেন,যারা বাজারে এই হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে অতি শিঘ্রই পুলিশ প্রশাসন তাদের ধরে বিচারের আওতায় আনবে বলে জানান।
রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বপনকুমার মজুমদার বলেন,গোরস্থান ও পুকুর লিজ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয় এর পর সেখানে ভাংচুর করা হয়। এ ঘটনায় তিনি ঘটনাস্থলে গিয়েছেন এবং পরিস্থিতি শান্ত করেছেন। তবে দুই পক্ষ থেকে তাকে বলেছেন পরিবেশ শান্ত হলে তারা স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করবেন। আর এখন অভিযোগ পাননি পেলে তিনি তা আমলে নিবেন। আর স্থানীয় ভাবে মিমাংসা না হলে ভুক্তভোগীরা যদি মামলা দায়ের করতে চায় তাহলে তিনি মামলা নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবেন বলেন।