Dhaka 3:54 pm, Friday, 3 February 2023

দৌলতদিয়ায় ট্রাক পারাপারে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 06:28:11 pm, Thursday, 21 November 2019
  • / 1448 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ দৌলতদিয়া ঘাটে ট্রাক পারাপারে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় গড়ে ওঠা দালাল চক্রের চাঁদাবাজি বন্ধ হয়নি। স্থানীয় রাজনীতিতে পরিবর্তন ও জনপ্রতিনিধি’র পরিবর্তন হলেও একই কায়দায় চলমান আছে চাঁদাবাজি।
বুধবার দুপুরে গোয়ালন্দ উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মন্ডল এ দাবি করেন।
তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে নদী পারাপার হওয়া পন্যবাহি ট্রাকের থেকে অতিরিক্ত ২৪০ টাকা আদায় করা হয়ে থাকে। এই চাঁদাবাজি এখনো অব্যাহত আছে। তবে ২৪০ টাকর স্থলে ২০০ টাকা আদায় করা হচ্ছে। এ ভাবে প্রতিদিন এখান থেকে এক থেকে দেড় লাখ টাকা চাঁদা আদায় করা হয়। ইতিপূর্বে যারা চাঁদা আদায় করত এখনো তারাই এই অবৈধ কাজের সাথে যুক্ত। এছাড়া এ অবৈধ চাঁদা আদায় নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাটে দু’টি গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে। যে কোন সময় দু’গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।
উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসদুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভুমি) আব্দুল্লাহ আল মামুন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নার্গিস পারভীন, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুজ্জামান মিয়া, ছোটভাকলা ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন, উজানচর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন ফকির, দেবগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম, গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সভাপতি আজু শিকদার প্রমুখ।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

দৌলতদিয়ায় ট্রাক পারাপারে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি

প্রকাশের সময় : 06:28:11 pm, Thursday, 21 November 2019

জনতার আদালত অনলাইন ॥ দৌলতদিয়া ঘাটে ট্রাক পারাপারে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় গড়ে ওঠা দালাল চক্রের চাঁদাবাজি বন্ধ হয়নি। স্থানীয় রাজনীতিতে পরিবর্তন ও জনপ্রতিনিধি’র পরিবর্তন হলেও একই কায়দায় চলমান আছে চাঁদাবাজি।
বুধবার দুপুরে গোয়ালন্দ উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মন্ডল এ দাবি করেন।
তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে নদী পারাপার হওয়া পন্যবাহি ট্রাকের থেকে অতিরিক্ত ২৪০ টাকা আদায় করা হয়ে থাকে। এই চাঁদাবাজি এখনো অব্যাহত আছে। তবে ২৪০ টাকর স্থলে ২০০ টাকা আদায় করা হচ্ছে। এ ভাবে প্রতিদিন এখান থেকে এক থেকে দেড় লাখ টাকা চাঁদা আদায় করা হয়। ইতিপূর্বে যারা চাঁদা আদায় করত এখনো তারাই এই অবৈধ কাজের সাথে যুক্ত। এছাড়া এ অবৈধ চাঁদা আদায় নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাটে দু’টি গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে। যে কোন সময় দু’গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।
উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসদুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভুমি) আব্দুল্লাহ আল মামুন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নার্গিস পারভীন, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুজ্জামান মিয়া, ছোটভাকলা ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন, উজানচর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন ফকির, দেবগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম, গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সভাপতি আজু শিকদার প্রমুখ।