Dhaka 7:20 pm, Friday, 3 February 2023

রাজবাড়ীতে হঠাৎ বাস ট্রাক চলাচল বন্ধে যাত্রীদের দুর্ভোগ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:51:23 pm, Wednesday, 20 November 2019
  • / 1397 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে বুধবার হঠাৎ করে বাস ট্রাক চলাচল বন্ধে চরম বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা। শ্রমিক নেতারা বলছেন, এটি ধর্মঘট নয়। সড়ক পরিবহন আইনে গাড়ি চালাতে চায়না বলে সাধারণ শ্রমিকরা বাস ট্রাক চলাচল বন্ধ রেখেছে। কবে চালু হবে তা কেউই বলতে পারছেন না।
জানা গেছে, রাজবাড়ী থেকে ঢাকা, বরিশাল, ফরিদপুর, কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন রুটে বাস চলাচল করে থাকে। সকাল থেকে দূরপাল্লা বা লোকাল কোনো বাসই ছেড়ে যায়নি রাজবাড়ী থেকে। বন্ধ রয়েছে ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান চলাচলও। ফলে যাত্রীরা যেমন বিপাকে পড়েছে তেমনি ব্যবসায়ীরাও পণ্য আনা নেয়ার পড়েছেন ভোগান্তিতে। দুপুর ১২টার দিকে শহরতলীর শ্রীপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা গেছে, বাস ও ট্রাকগুলো সারিবদ্ধভাবে রাখা আছে। বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীরা অটোরিক্সা, মাহেন্দ্র, নসিমনে করে বাড়তি ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যাচ্ছেন। বন্ধ থাকতে দেখা গেছে বাসের কাউন্টারগুলোও।
যাত্রীরা জানান, তারা কোন বাস পাচ্ছেন না। যে কারণে অতিরিক্ত টাকা ও সময় ব্যয় করতে হচ্ছে। বাস না পেয়ে মাহেন্দ্র বা অটোরিকসা করে এখন তাদের গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। তারা পরিবহন সেক্টরের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। সরকারের কাছে এর একটি সুষ্ঠু সমাধান আশা করেন তারা।
রাজবাড়ী জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ জানান, এটি কোনো ধর্মঘট নয়। পরিবহন চলাচল বন্ধ রাখতে আমরা কোনো নির্দেশনা দেইনি। নতুন সড়ক পরিবহন আইনের যেসব ধারা দেয়া হয়েছে সেসব ধারার বোঝা মাথায় নিয়ে শ্রমিকরা গাড়ি চালাত চায়না। অনেক শ্রমিক মালিকদের কাছে গাড়ি বুঝিয়ে দিয়েছে। কাল পরশু ঢাকায় সভা আছে। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা শ্রমিকদের নির্দেশনা দেব। এখন শ্রমিকরা গাড়ি না চালালে আমাদের কিছু করণীয় নেই।
রাজবাড়ী জেলা ট্রাক কাভার্ড ভ্যান ড্রাইভার ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন মনিও জানালেন, তারা সাংগঠনিকভাবে গাড়ি বন্ধ করেন নাই। শ্রমিকরা নিজে থেকেই গাড়ি চালানো বন্ধ রেখেছে। নতুন সড়ক পরিবহনের কিছু আইন আছে। যা সংশোধন করা প্রয়োজন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে হঠাৎ বাস ট্রাক চলাচল বন্ধে যাত্রীদের দুর্ভোগ

প্রকাশের সময় : 07:51:23 pm, Wednesday, 20 November 2019

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে বুধবার হঠাৎ করে বাস ট্রাক চলাচল বন্ধে চরম বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা। শ্রমিক নেতারা বলছেন, এটি ধর্মঘট নয়। সড়ক পরিবহন আইনে গাড়ি চালাতে চায়না বলে সাধারণ শ্রমিকরা বাস ট্রাক চলাচল বন্ধ রেখেছে। কবে চালু হবে তা কেউই বলতে পারছেন না।
জানা গেছে, রাজবাড়ী থেকে ঢাকা, বরিশাল, ফরিদপুর, কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন রুটে বাস চলাচল করে থাকে। সকাল থেকে দূরপাল্লা বা লোকাল কোনো বাসই ছেড়ে যায়নি রাজবাড়ী থেকে। বন্ধ রয়েছে ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান চলাচলও। ফলে যাত্রীরা যেমন বিপাকে পড়েছে তেমনি ব্যবসায়ীরাও পণ্য আনা নেয়ার পড়েছেন ভোগান্তিতে। দুপুর ১২টার দিকে শহরতলীর শ্রীপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা গেছে, বাস ও ট্রাকগুলো সারিবদ্ধভাবে রাখা আছে। বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীরা অটোরিক্সা, মাহেন্দ্র, নসিমনে করে বাড়তি ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যাচ্ছেন। বন্ধ থাকতে দেখা গেছে বাসের কাউন্টারগুলোও।
যাত্রীরা জানান, তারা কোন বাস পাচ্ছেন না। যে কারণে অতিরিক্ত টাকা ও সময় ব্যয় করতে হচ্ছে। বাস না পেয়ে মাহেন্দ্র বা অটোরিকসা করে এখন তাদের গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। তারা পরিবহন সেক্টরের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। সরকারের কাছে এর একটি সুষ্ঠু সমাধান আশা করেন তারা।
রাজবাড়ী জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ জানান, এটি কোনো ধর্মঘট নয়। পরিবহন চলাচল বন্ধ রাখতে আমরা কোনো নির্দেশনা দেইনি। নতুন সড়ক পরিবহন আইনের যেসব ধারা দেয়া হয়েছে সেসব ধারার বোঝা মাথায় নিয়ে শ্রমিকরা গাড়ি চালাত চায়না। অনেক শ্রমিক মালিকদের কাছে গাড়ি বুঝিয়ে দিয়েছে। কাল পরশু ঢাকায় সভা আছে। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা শ্রমিকদের নির্দেশনা দেব। এখন শ্রমিকরা গাড়ি না চালালে আমাদের কিছু করণীয় নেই।
রাজবাড়ী জেলা ট্রাক কাভার্ড ভ্যান ড্রাইভার ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন মনিও জানালেন, তারা সাংগঠনিকভাবে গাড়ি বন্ধ করেন নাই। শ্রমিকরা নিজে থেকেই গাড়ি চালানো বন্ধ রেখেছে। নতুন সড়ক পরিবহনের কিছু আইন আছে। যা সংশোধন করা প্রয়োজন।