Dhaka 10:42 am, Sunday, 5 February 2023

রাজবাড়ীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪৮

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 09:04:58 pm, Saturday, 3 August 2019
  • / 1546 জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে ডেঙ্গু জ্বরে এ পর্যন্ত ৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে, বালিয়াকান্দি তিনজন ও পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন চিকিৎসাধীন আছে। আক্রান্তদের বেশিরভাগ ঢাকা থেকে রাজবাড়ী এসেছেন। তবে দুজন রোগীকে পাওয়া গেছে যারা রাজবাড়ী থেকেই আক্রান্ত হয়েছেন। এরা হলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের ধুলদীজয়পুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা রফিক মন্ডল (৩০) ও গোয়লন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের বাসিন্দা স্বর্ণালী আক্তার। এরা দুজনেই । রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের ডেঙ্গু কর্ণারে চিকিৎসাধীন আছেন।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, শুক্রবার পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল ৪১ জন। শনিবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮ জনে। এদিকে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় জনমনে আতঙ্কও বাড়ছে। জ্বর হলেই তারা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হচ্ছে।
রাাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসাল্টেন্ট ডা. শামীম আহসান বলেন, আমাদের সাধ্যমত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। পরিস্থিতি এখনও আমাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪৮

প্রকাশের সময় : 09:04:58 pm, Saturday, 3 August 2019


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে ডেঙ্গু জ্বরে এ পর্যন্ত ৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে, বালিয়াকান্দি তিনজন ও পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন চিকিৎসাধীন আছে। আক্রান্তদের বেশিরভাগ ঢাকা থেকে রাজবাড়ী এসেছেন। তবে দুজন রোগীকে পাওয়া গেছে যারা রাজবাড়ী থেকেই আক্রান্ত হয়েছেন। এরা হলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের ধুলদীজয়পুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা রফিক মন্ডল (৩০) ও গোয়লন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের বাসিন্দা স্বর্ণালী আক্তার। এরা দুজনেই । রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের ডেঙ্গু কর্ণারে চিকিৎসাধীন আছেন।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, শুক্রবার পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল ৪১ জন। শনিবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮ জনে। এদিকে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় জনমনে আতঙ্কও বাড়ছে। জ্বর হলেই তারা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হচ্ছে।
রাাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসাল্টেন্ট ডা. শামীম আহসান বলেন, আমাদের সাধ্যমত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। পরিস্থিতি এখনও আমাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি।