Dhaka ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে মোবাইল প্রতারক চক্রের সদস্য কলেজ ছাত্র গ্রেফতার

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:০২:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ অগাস্ট ২০১৯
  • / ১৪৪০ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মোবাইল প্রতারণা চক্রের সদস্য মোঃ সোহাগুজ্জামান সোহাগকে গ্রেফতার করেছে। তার পিতার নাম, আঃ রশিদ মন্ডল। বাড়ী উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে। সে অনার্সে পড়ালেখা করে।
এলাকার মানুষের সাথে কথা বলে জানাগেছে, বিকাশের মাধ্যমে নানা ধরনের অপকৌশলে সাধারন মানুষকে ঠকিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র। দিনদিন প্রতারনার কৌশল পাল্টে যাচ্ছে। আর এ প্রতারক চক্র দু,হাত ভরে কামিয়ে অল্প সময়েই কোটিপতি বনে যাচ্ছে। আর এ প্রতারক চক্রের কৌশল দিন দিন পরিবর্তনও করছে। রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের মধুপুর, বাকসাডাঙ্গী, চরঘিকমলা, নারুয়া, সোনাকান্দর, খাটিয়াগাড়া, চর টাকাপোড়াসহ আশপাশের গ্রামেও ছড়িয়েছে মোবাইল প্রতারনাকারী চক্র ওয়েলকামপার্টির তৎপরতা। একজন হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান সোহাগ। অর্থাভাবে পড়ালেখাই বন্ধ হওয়ার উপক্রম। বাবা-মায়ের কষ্টের অর্থে তাকে কলেজে ভর্তি করে। পড়াশোনাও ভালোই চলছিল। মামাবাড়ী ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার ঢুমাইন গ্রামে হওয়ার সুবাদে ও এলাকার কিছু ওয়েলকামপার্টির সদস্যদের সাথে তার উঠাবসা। ভালোভাবেই আয়ত্ত করে মোবাইল প্রতারনার কাজ। অল্প দিনেই প্রতারনার কৌশল কাজে লাগিয়ে কোটিপতি বনে গেছে অনার্স পড়–য়া এ ছাত্র। তার প্রতারনার কাজে সহযোগিতা করতে ৩-৪জন বেকার যুবক মোটর সাইকেলে নিয়ে তার জন্যই ব্যস্ত থাকে। এদেরকে বেতন দিয়ে রেখেছে ওই ছাত্র। অল্প দিনেই কোটিপতি বনে গেছে ওই ছাত্র। তার চলাফেরা টাকার গরমে অনেকটাই পরিবর্তন। নতুন নতুন গাড়ী, বাড়ীতে কোটি টাকা খরচ করে রাজসিক ভবন নির্মাণ করাসহ রাজকীয় ভাব দেখা দিয়েছে। তার এ চালচলনে আশপাশের লোকজনও বিস্মিত। বেকার কলেজ ছাত্রের এতো টাকার উৎসক কোথায়। কিছুদিন না যেতেই বিষয়টি এখন পরিস্কার হয়েছে এলাকার লোকজনের কাছে। তার বাড়ীতে এখন অনেক প্রভাবশালীদেরই অবাধ যাতায়াত লক্ষ্য করা যায়। এখন অনেকেই কোটিপতির তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রতারনার সরঞ্জামাদিসহ সোহাগকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে।
বালিয়াকান্দি থানার এস,আই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম বলেন, প্রতারনার শিকার ভুক্তভোগী আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামী সোহাগুজ্জামান সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে শুক্রবার রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে মোবাইল প্রতারক চক্রের সদস্য কলেজ ছাত্র গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ০৯:০২:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ অগাস্ট ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মোবাইল প্রতারণা চক্রের সদস্য মোঃ সোহাগুজ্জামান সোহাগকে গ্রেফতার করেছে। তার পিতার নাম, আঃ রশিদ মন্ডল। বাড়ী উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামে। সে অনার্সে পড়ালেখা করে।
এলাকার মানুষের সাথে কথা বলে জানাগেছে, বিকাশের মাধ্যমে নানা ধরনের অপকৌশলে সাধারন মানুষকে ঠকিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র। দিনদিন প্রতারনার কৌশল পাল্টে যাচ্ছে। আর এ প্রতারক চক্র দু,হাত ভরে কামিয়ে অল্প সময়েই কোটিপতি বনে যাচ্ছে। আর এ প্রতারক চক্রের কৌশল দিন দিন পরিবর্তনও করছে। রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের মধুপুর, বাকসাডাঙ্গী, চরঘিকমলা, নারুয়া, সোনাকান্দর, খাটিয়াগাড়া, চর টাকাপোড়াসহ আশপাশের গ্রামেও ছড়িয়েছে মোবাইল প্রতারনাকারী চক্র ওয়েলকামপার্টির তৎপরতা। একজন হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান সোহাগ। অর্থাভাবে পড়ালেখাই বন্ধ হওয়ার উপক্রম। বাবা-মায়ের কষ্টের অর্থে তাকে কলেজে ভর্তি করে। পড়াশোনাও ভালোই চলছিল। মামাবাড়ী ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার ঢুমাইন গ্রামে হওয়ার সুবাদে ও এলাকার কিছু ওয়েলকামপার্টির সদস্যদের সাথে তার উঠাবসা। ভালোভাবেই আয়ত্ত করে মোবাইল প্রতারনার কাজ। অল্প দিনেই প্রতারনার কৌশল কাজে লাগিয়ে কোটিপতি বনে গেছে অনার্স পড়–য়া এ ছাত্র। তার প্রতারনার কাজে সহযোগিতা করতে ৩-৪জন বেকার যুবক মোটর সাইকেলে নিয়ে তার জন্যই ব্যস্ত থাকে। এদেরকে বেতন দিয়ে রেখেছে ওই ছাত্র। অল্প দিনেই কোটিপতি বনে গেছে ওই ছাত্র। তার চলাফেরা টাকার গরমে অনেকটাই পরিবর্তন। নতুন নতুন গাড়ী, বাড়ীতে কোটি টাকা খরচ করে রাজসিক ভবন নির্মাণ করাসহ রাজকীয় ভাব দেখা দিয়েছে। তার এ চালচলনে আশপাশের লোকজনও বিস্মিত। বেকার কলেজ ছাত্রের এতো টাকার উৎসক কোথায়। কিছুদিন না যেতেই বিষয়টি এখন পরিস্কার হয়েছে এলাকার লোকজনের কাছে। তার বাড়ীতে এখন অনেক প্রভাবশালীদেরই অবাধ যাতায়াত লক্ষ্য করা যায়। এখন অনেকেই কোটিপতির তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রতারনার সরঞ্জামাদিসহ সোহাগকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে।
বালিয়াকান্দি থানার এস,আই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম বলেন, প্রতারনার শিকার ভুক্তভোগী আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামী সোহাগুজ্জামান সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে শুক্রবার রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।