Dhaka 4:42 pm, Wednesday, 8 February 2023

বালিয়াকান্দিতে তালাকে ক্ষুব্ধ হয়ে সাবেক স্ত্রী ও তার স্বামী শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 09:01:33 pm, Saturday, 13 July 2019
  • / 1432 জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ তালাকে ক্ষুব্ধ হয়ে রবিউল মল্লিক নামে এক যুবক তার সাবেক স্ত্রী স্বর্ণা বেগম, স্বর্ণার স্বামী রেজাউল করিম এবং স্বর্ণার শাশুড়ি মরিয়ম বেগমকে কুপিয়ে জখম করেছে। পরে স্থানীয় জনতা রবিউল মল্লিককে আটক করে পুলিশে দেয়। শুক্রবার দুপুরের দিকে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনাট ঘটে। এ ঘটনায় স্বর্ণার ভাশুর মফিজ মন্ডল বাদী হয়ে বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা করেছেন। আহত তিনজনকে বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
মামলার বাদী মফিজ মন্ডল জানান, দেড় বছর আগে তার ছোট ভাই রেজাউল করিম রিপন বিয়ে করে রবিউলের স্ত্রী স্বর্ণাকে। শুক্রবার রবিউল তাদের বাড়িতে গিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী স্বর্ণার নাম ধরে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে শুরু করে। ওই সময় তার মা বাইরে এসে তাদেরকে গালিগালাজ করতে বারণ করে। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে রবিউল তার মা, ছোট ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তাদের আর্তচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে রবিউলকে আটক করে পুলিশে দেয়।
পুলিশ হেফাজতে থাকা রবিউল মল্লিক বলেন, আমার অনুপস্থিতিতে রেজাউল আমার স্ত্রীকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে বিয়ে করেছে। দেড় বছর পর বাড়ি এসে বিষয়টি জানতে পারি। শুক্রবার ওই বাড়িতে গেলে আমাকে আটকে রেখে থানা পুলিশে দেয়।
বালিয়াকান্দি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা জানান, স্বর্ণা বেগম রেজাউলকে তালাক দেয়ায় এ হামলা করেছে। এব্যাপারে রেজাউলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার তাকে রাজবাড়ীর আদালতে চালান করা হয়।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

বালিয়াকান্দিতে তালাকে ক্ষুব্ধ হয়ে সাবেক স্ত্রী ও তার স্বামী শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশের সময় : 09:01:33 pm, Saturday, 13 July 2019


জনতার আদালত অনলাইন ॥ তালাকে ক্ষুব্ধ হয়ে রবিউল মল্লিক নামে এক যুবক তার সাবেক স্ত্রী স্বর্ণা বেগম, স্বর্ণার স্বামী রেজাউল করিম এবং স্বর্ণার শাশুড়ি মরিয়ম বেগমকে কুপিয়ে জখম করেছে। পরে স্থানীয় জনতা রবিউল মল্লিককে আটক করে পুলিশে দেয়। শুক্রবার দুপুরের দিকে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনাট ঘটে। এ ঘটনায় স্বর্ণার ভাশুর মফিজ মন্ডল বাদী হয়ে বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা করেছেন। আহত তিনজনকে বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
মামলার বাদী মফিজ মন্ডল জানান, দেড় বছর আগে তার ছোট ভাই রেজাউল করিম রিপন বিয়ে করে রবিউলের স্ত্রী স্বর্ণাকে। শুক্রবার রবিউল তাদের বাড়িতে গিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী স্বর্ণার নাম ধরে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে শুরু করে। ওই সময় তার মা বাইরে এসে তাদেরকে গালিগালাজ করতে বারণ করে। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে রবিউল তার মা, ছোট ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তাদের আর্তচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে রবিউলকে আটক করে পুলিশে দেয়।
পুলিশ হেফাজতে থাকা রবিউল মল্লিক বলেন, আমার অনুপস্থিতিতে রেজাউল আমার স্ত্রীকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে বিয়ে করেছে। দেড় বছর পর বাড়ি এসে বিষয়টি জানতে পারি। শুক্রবার ওই বাড়িতে গেলে আমাকে আটকে রেখে থানা পুলিশে দেয়।
বালিয়াকান্দি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা জানান, স্বর্ণা বেগম রেজাউলকে তালাক দেয়ায় এ হামলা করেছে। এব্যাপারে রেজাউলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার তাকে রাজবাড়ীর আদালতে চালান করা হয়।