Dhaka ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জেলা প্রশাসকের সদর হাসপাতাল পরিদর্শন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৫২:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০১৯
  • / ১৩৪৭ জন সংবাদটি পড়েছেন


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রোববার দুপুরে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল আকস্মিক পরিদর্শন করেছেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম। এ সময় সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহফুজার রহমান সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আশেক হাসান, হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দিলীপ কুমার বিশ্বাস, আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ শাহনিমা নার্গিস, রাজবাড়ী সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আব্দুল হান্নানসহ অন্যান্য মেডিক্যাল অফিসার এবং কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরিদর্শনকালে তিনি হাসপাতালের জরুরী বিভাগ, অপারেশন থিয়েটার, লেবার রুম, গাইনি ওয়ার্ড, সার্জারি ওয়ার্ড সরেজমিনে ঘুরে দেখেন এবং রোগীদের সাথে কথা বলে তাদের চিকিৎসা সেবার খোঁজখবর নেন। এছাড়া খাবার পরিবেশন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন এবং খাবারের মান ও পরিমাণ যাচাই করেন।
তিনি জরুরী বিভাগের ভর্তি রেজিস্টার পরীক্ষা করেন এবং হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীদের তথ্যাদি যাচাই করেন। পরিদর্শনকালে হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক জানান, বর্তমানে হাসপাতালে সিনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনি),সিনিয়র কনসালটেন্ট (চর্ম ও যৌন), সিনিয়র কনসালটেন্ট (ফরেনসিক মেডিসিন), সিনিয়র কনসালটেন্ট (অর্থ সার্জারি), সিনিয়র কনসালটেন্ট (ই এন টি),সিনিয়র কনসালটেন্ট (এনেসথেসিয়া), জুনিয়র কনসালটেন্ট (ইএনটি),জুনিয়র কনসালটেন্ট (চক্ষু), জুনিয়র কনসালটেন্ট (এনেসথেসিয়া),জুনিয়র কনসালটেন্ট (রেডিওলজি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (কার্ডিওলজি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (সার্জারি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন) এবং জুনিয়র কনসালটেন্ট (প্যাথলজি) মোট ১৩ টি গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসকের পদ শূন্য রয়েছে। এ ছাড়া আলট্রাসোনোগ্রাম মেশিন, ডেন্টাল ইউনিট, ডিজিটাল এক্সরে মেশিনের প্রিন্টারসহ আরও কয়েকটি মেশিনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলে হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। কনসালটেন্ট চিকিৎসকের শূন্য পদ পূরণ এবং প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সরবরাহের জন্য জেলা প্রশাসক সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পত্র প্রেরণ করবেন বলে সিভিল সার্জন এবং হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ককে জানান।
জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাধিকারভুক্ত প্রকল্পসমূহের মধ্যে অন্যতম। হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা স্থানীয় জনসাধারণ যাতে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেবা পায় তা নিশ্চিত করতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
রোগীদের সাথে আলাপকালেও তিনি মাঝে মাঝে আকস্মিকভাবে তাদের অবস্থা দেখতে চলে আসবেন বলে জানান।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

জেলা প্রশাসকের সদর হাসপাতাল পরিদর্শন

প্রকাশের সময় : ০৮:৫২:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০১৯


জনতার আদালত অনলাইন ॥ রোববার দুপুরে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল আকস্মিক পরিদর্শন করেছেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম। এ সময় সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহফুজার রহমান সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আশেক হাসান, হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ দিলীপ কুমার বিশ্বাস, আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ শাহনিমা নার্গিস, রাজবাড়ী সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আব্দুল হান্নানসহ অন্যান্য মেডিক্যাল অফিসার এবং কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরিদর্শনকালে তিনি হাসপাতালের জরুরী বিভাগ, অপারেশন থিয়েটার, লেবার রুম, গাইনি ওয়ার্ড, সার্জারি ওয়ার্ড সরেজমিনে ঘুরে দেখেন এবং রোগীদের সাথে কথা বলে তাদের চিকিৎসা সেবার খোঁজখবর নেন। এছাড়া খাবার পরিবেশন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন এবং খাবারের মান ও পরিমাণ যাচাই করেন।
তিনি জরুরী বিভাগের ভর্তি রেজিস্টার পরীক্ষা করেন এবং হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীদের তথ্যাদি যাচাই করেন। পরিদর্শনকালে হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক জানান, বর্তমানে হাসপাতালে সিনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনি),সিনিয়র কনসালটেন্ট (চর্ম ও যৌন), সিনিয়র কনসালটেন্ট (ফরেনসিক মেডিসিন), সিনিয়র কনসালটেন্ট (অর্থ সার্জারি), সিনিয়র কনসালটেন্ট (ই এন টি),সিনিয়র কনসালটেন্ট (এনেসথেসিয়া), জুনিয়র কনসালটেন্ট (ইএনটি),জুনিয়র কনসালটেন্ট (চক্ষু), জুনিয়র কনসালটেন্ট (এনেসথেসিয়া),জুনিয়র কনসালটেন্ট (রেডিওলজি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (কার্ডিওলজি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (সার্জারি), জুনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন) এবং জুনিয়র কনসালটেন্ট (প্যাথলজি) মোট ১৩ টি গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসকের পদ শূন্য রয়েছে। এ ছাড়া আলট্রাসোনোগ্রাম মেশিন, ডেন্টাল ইউনিট, ডিজিটাল এক্সরে মেশিনের প্রিন্টারসহ আরও কয়েকটি মেশিনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলে হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। কনসালটেন্ট চিকিৎসকের শূন্য পদ পূরণ এবং প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সরবরাহের জন্য জেলা প্রশাসক সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পত্র প্রেরণ করবেন বলে সিভিল সার্জন এবং হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ককে জানান।
জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাধিকারভুক্ত প্রকল্পসমূহের মধ্যে অন্যতম। হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা স্থানীয় জনসাধারণ যাতে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেবা পায় তা নিশ্চিত করতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
রোগীদের সাথে আলাপকালেও তিনি মাঝে মাঝে আকস্মিকভাবে তাদের অবস্থা দেখতে চলে আসবেন বলে জানান।