Dhaka 3:46 pm, Thursday, 8 December 2022

রাজবাড়ীতে অনলাইনে আবেদনকারীদের মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে নাম অন্তর্ভূক্ত করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 09:12:01 pm, Thursday, 25 May 2017
  • / 1296 জন সংবাদটি পড়েছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দিয়ে রাজাকার, কম বয়সী ও স্বাধীনতা বিরোধীদের অর্থের বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় স্থান দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা এলাকার অনলাইনে আবেদনকারী মুক্তিযোদ্ধারা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রাজবাড়ী শহরের স্থানীয় একটি পত্রিকা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তারা এ অভিযোগ করেন। এসময় তারা মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে তাদের নাম অন্তর্ভূক্ত করারও দাবি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আব্দুল খালেক। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২০/৫/১৭ ইং তারিখে যাচাই বাছাই কমিটির কয়েকজন অর্থের বিনিময়ে তাদের পছন্দমতো লোককে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে চূড়ান্ত তালিকা করেছে। যেখানে স্বাধীনতা বিরোধী ও কম বয়সীরা স্থান পেয়েছে। এ তালিকা বাতিলের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, গেজেটে অন্তর্ভূক্তির জন্য অনলাইনে আবেদনকারী ১০৫ জন আবেদন করেছেন। যারা দেশের জন্য জীবনবাজী রেখে যুদ্ধ করেছেন। অথচ তাদেরকে তালিকায় স্থান দেয়া হয়নি। প্রকৃত এসব মুক্তিযোদ্ধাকে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় স্থান দেয়ার দাবি জানান তিনি।
সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মো. সালাউদ্দিন মাসুদ, ময়েনউদ্দিন মোল্লা, মো. লাল মিয়া, সিদ্দিকুর রহমান, আকমল উদ্দিন, আব্দুর রহমান প্রমুখ।
রাজবাড়ী জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে অনলাইনে আবেদনকারীদের মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে নাম অন্তর্ভূক্ত করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশের সময় : 09:12:01 pm, Thursday, 25 May 2017

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দিয়ে রাজাকার, কম বয়সী ও স্বাধীনতা বিরোধীদের অর্থের বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় স্থান দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা এলাকার অনলাইনে আবেদনকারী মুক্তিযোদ্ধারা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রাজবাড়ী শহরের স্থানীয় একটি পত্রিকা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তারা এ অভিযোগ করেন। এসময় তারা মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে তাদের নাম অন্তর্ভূক্ত করারও দাবি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আব্দুল খালেক। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২০/৫/১৭ ইং তারিখে যাচাই বাছাই কমিটির কয়েকজন অর্থের বিনিময়ে তাদের পছন্দমতো লোককে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে চূড়ান্ত তালিকা করেছে। যেখানে স্বাধীনতা বিরোধী ও কম বয়সীরা স্থান পেয়েছে। এ তালিকা বাতিলের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, গেজেটে অন্তর্ভূক্তির জন্য অনলাইনে আবেদনকারী ১০৫ জন আবেদন করেছেন। যারা দেশের জন্য জীবনবাজী রেখে যুদ্ধ করেছেন। অথচ তাদেরকে তালিকায় স্থান দেয়া হয়নি। প্রকৃত এসব মুক্তিযোদ্ধাকে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় স্থান দেয়ার দাবি জানান তিনি।
সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মো. সালাউদ্দিন মাসুদ, ময়েনউদ্দিন মোল্লা, মো. লাল মিয়া, সিদ্দিকুর রহমান, আকমল উদ্দিন, আব্দুর রহমান প্রমুখ।
রাজবাড়ী জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।