Dhaka ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথ ঘন কুয়াশায় ২ ঘন্টা ফেরিসার্ভিস বন্ধ, মাঝনদীতে চার ফেরি আটকা

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১২:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭
  • / ১৬২৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

গোয়ালন্দ প্রতিনিধি ॥ ঘাট সংকটের পাশাপাশি ঘন কুয়াশার কারণে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ফেরিসার্ভিস ব্যাহত হচ্ছে। ফের ঘন কুয়াশা পড়ায় বৃহস্পতিবার ওই নৌপথে টানা দুই ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ ছিল। এসময় ভাষা শহীদ ডা. গোলাম মাওলা, খানজাহান আলী, বনলতা ও কপোতী নামের চারটি ফেরি মাঝনদীতে আটকা পড়ে। এদিকে ‘লো-ওয়াটার’ কাজের কারণে দৌলতদিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ৪ নম্বর ফেরিঘাটটি গত পাঁচ দিন যাবত বন্ধ হয়ে আছে। ফলে দৌলতদিয়া ঘাটে নদীপারের অপেক্ষায় থাকে যাত্রীবাহি বাস, পণ্যবাহি ট্রাকসহ দুই শতাধিক বিভিন্ন গাড়ি।
বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যাবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া-মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া একটি ব্যস্ততম নৌপথ। প্রতিদিন এ পথে কয়েক হাজার বিভিন্ন গাড়ি ফেরিপারাপার হয়ে থাকে। কিন্তু ঘনকুয়াশার কারণে এই নৌপথে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত টানা দুই ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ ছিল। এসময় কুয়াশার কবলে পড়ে বিভিন্ন গাড়ি ও যাত্রী নিয়ে ৪টি ফেরি মাঝনদীতে নোঙর করে থাকে। অপর ১২টি ফেরি পূর্ণ লোড নিয়ে ছেড়ে যাওয়ার অপেক্ষায় উভয় পারের বিভিন্ন ঘাটপন্টুনে ভিরে ছিল। এদিকে দৌলতদিয়ায় চারটি ফেরিঘাটের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ৪ নম্বর ঘাটটি গত রবিবার (২৯ জানুয়ারী) থেকে বন্ধ রয়েছে। ঘাট সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ঘন কুয়াশার পাশাপাশি ঘাট সংকটের কারণে পারাপার ব্যাহত হওয়ায় বৃহস্পতিবার দৌলতদিয়া ঘাটে আটকা পড়ে যাত্রীবাহি বাস, মাইক্রোবাস, পণ্যবাহি ট্রাকসহ দুই শতাধিক বিভিন্ন গাড়ি। ঘাটে আটকেপড়া বিভিন্ন বাসের সাধারণ যাত্রীরা এসময় ভোগান্তির শিকার হন।
বিআইডাব্লিউটিএ’র উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. শাহ্ আলম বলেন, ‘মিড ওয়াটার থেকে লো-ওয়াটারে নামানোর কাজ  চলতে থাকায় দৌলতদিয়ার ৪ নম্বর ঘাটটি বন্ধ রাখা হয়েছে।’ তবে বন্ধ থাকা ওই ঘাটটি পুনরায় চালু করতে সেখানে দ্রুত কাজ চালানো হচ্ছে বলে তিনি জানান।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথ ঘন কুয়াশায় ২ ঘন্টা ফেরিসার্ভিস বন্ধ, মাঝনদীতে চার ফেরি আটকা

প্রকাশের সময় : ০৮:১২:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭

গোয়ালন্দ প্রতিনিধি ॥ ঘাট সংকটের পাশাপাশি ঘন কুয়াশার কারণে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ফেরিসার্ভিস ব্যাহত হচ্ছে। ফের ঘন কুয়াশা পড়ায় বৃহস্পতিবার ওই নৌপথে টানা দুই ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ ছিল। এসময় ভাষা শহীদ ডা. গোলাম মাওলা, খানজাহান আলী, বনলতা ও কপোতী নামের চারটি ফেরি মাঝনদীতে আটকা পড়ে। এদিকে ‘লো-ওয়াটার’ কাজের কারণে দৌলতদিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ৪ নম্বর ফেরিঘাটটি গত পাঁচ দিন যাবত বন্ধ হয়ে আছে। ফলে দৌলতদিয়া ঘাটে নদীপারের অপেক্ষায় থাকে যাত্রীবাহি বাস, পণ্যবাহি ট্রাকসহ দুই শতাধিক বিভিন্ন গাড়ি।
বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যাবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া-মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া একটি ব্যস্ততম নৌপথ। প্রতিদিন এ পথে কয়েক হাজার বিভিন্ন গাড়ি ফেরিপারাপার হয়ে থাকে। কিন্তু ঘনকুয়াশার কারণে এই নৌপথে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত টানা দুই ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ ছিল। এসময় কুয়াশার কবলে পড়ে বিভিন্ন গাড়ি ও যাত্রী নিয়ে ৪টি ফেরি মাঝনদীতে নোঙর করে থাকে। অপর ১২টি ফেরি পূর্ণ লোড নিয়ে ছেড়ে যাওয়ার অপেক্ষায় উভয় পারের বিভিন্ন ঘাটপন্টুনে ভিরে ছিল। এদিকে দৌলতদিয়ায় চারটি ফেরিঘাটের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ৪ নম্বর ঘাটটি গত রবিবার (২৯ জানুয়ারী) থেকে বন্ধ রয়েছে। ঘাট সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ঘন কুয়াশার পাশাপাশি ঘাট সংকটের কারণে পারাপার ব্যাহত হওয়ায় বৃহস্পতিবার দৌলতদিয়া ঘাটে আটকা পড়ে যাত্রীবাহি বাস, মাইক্রোবাস, পণ্যবাহি ট্রাকসহ দুই শতাধিক বিভিন্ন গাড়ি। ঘাটে আটকেপড়া বিভিন্ন বাসের সাধারণ যাত্রীরা এসময় ভোগান্তির শিকার হন।
বিআইডাব্লিউটিএ’র উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. শাহ্ আলম বলেন, ‘মিড ওয়াটার থেকে লো-ওয়াটারে নামানোর কাজ  চলতে থাকায় দৌলতদিয়ার ৪ নম্বর ঘাটটি বন্ধ রাখা হয়েছে।’ তবে বন্ধ থাকা ওই ঘাটটি পুনরায় চালু করতে সেখানে দ্রুত কাজ চালানো হচ্ছে বলে তিনি জানান।