কালুখালীর নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন  তুহিন সরদার

জনতার আদালত অনলাইন আগামী  ২৮ নভেম্বর  রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার ৭ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারনায় জমে উঠেছে কালুখালীর ৭ ইউনিয়ন। প্রার্থীরা গনসংযোগ,পথসভা ও উঠান বৈঠকের মধ্য দিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করছেন।

বুধবার কালুখালীর মৃগী ইউনিয়নের হাট বাজার ও প্রত্যন্ত এলাকায় গনসংযোগে বের হন চেয়ারম্যান প্রার্থী সরদার হাসিবুল হক তুহিন। মোটর সাইকেল প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়া এই প্রার্থীর মৃগীর ঐতিহ্যবাহি সরদার পারিবারের  সন্তান। বিট্রিশ বিরোধী আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা রাখায় এই পরিবারটির প্রতি মৃগীর মানুষের দূর্বলতা রয়েছে। তাছাড়া মোটর সাইকেল প্রতিকের প্রতিও মৃগিবাসীর আলাদা এক টান রয়েছে। এসব বিবেচনা করেই সরদার হাসিবুল হক তুহিন এর পক্ষ নিয়েছে মৃগীর মানুষ।

বিগত ১০ বছর ধরে সরদার হাসিবুল হক তুহিন কালুখালীর ৭ ইউনিয়নের যুব সমাজের সাথে মিলেমিশে নানা সামাজিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। সে দীর্ঘদিন ধরে মাদক প্রতিরোধ ও বাল্যবিবাহ রোধের জন্য যুব সমাজের সাথে কাজ করছেন। এজন্য মৃগী ইউনিয়নের যুব সমাজের কাছে  সরদার হাসিবুল হক তুহিন এক পরিচিত মুখ।

গনসংযোগকালে সরদার হাসিবুল হক তুহিন জানায়, মৃগী কালুখালী উপজেলার  সবচেয়ে সমৃদ্ধশালী ইউনিয়ন। বিট্রিশ আমল থেকে ধান,পাট,পেয়াজ,রসুন উৎপাদনে মৃগী উপজেলার সেরা ইউনিয়ন।স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এই এলাকা থেকেই যুদ্ধের  নেতৃত্ব দেওয়া হতো। এরপরও মৃগী কালুখালীর একটি অবহেলিত ইউনিয়ন। সারাদেশে ব্যাপক  উন্নয়ন হলেও মৃগী এলাকায় উন্নয়নের কোন ছোয়া লাগেনি। তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে এই অবহেলিত এলাকার উন্নয়ন ও অগ্রগতি হবে বলে জানালেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সরদার হাসিবুল হক তুহিন।

Print Friendly, PDF & Email

     একই ধরনের আরও কিছু খবর....

Top Posts & Pages

মোটরসাইকেল চুরি করে পালানোর সময় জনতার হাতে পাকড়াও
বালিয়াকান্দিতে পুলিশ পরিচয়ে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি।। গ্রেফতার ৩ জন
পাংশায় নৌকার মনোনয়ন চূড়ান্ত ॥ ৩ নতুন মুখ
বৃষ্টিতে ক্ষতি ৭ হাজার হেক্টর জমির ফসল
গোয়ালন্দে চার ভিক্ষুককে পুনর্বাসন