নোয়াখালীতে ধর্ষণ: এবার মানবাধিকার কমিশনের মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে একজন গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা জানার পরও তথ্য গোপন করার অভিযোগে স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে গ্রেফতার করে পুলিশ রিমাণ্ডে নিয়েছে।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত দল মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয় লোকজন এবং ক্ষতিগ্রস্ত নারীর বক্তব্যের ভিত্তিতে স্থানীয় থানায় নতুন একটি ধর্ষণ মামলা করেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত নারীর বক্তব্য উদ্ধৃত করে কমিশনের তদন্ত দলের প্রধান বলেছেন, ক্ষতিগ্রস্ত নারী এখনকার ঘটনার আগে গত দুই বছরে তাকে দু’বার ধর্ষণ করার অভিযোগ জানিয়েছেন। এর ভিত্তিতে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন মামলাটি করেছে।

বিবস্ত্র করে গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনাটির এক মাস পর সেই ঘটনার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে যখন ছড়িয়ে পড়ে, এরপর এই ঘটনা নিয়ে তোলপাড় চলছে।

তবে এখন অভিযোগ উঠেছে, গত ২রা সেপ্টেম্বর ঘটনা ঘটার পর স্থানীয় জনপ্রতিনিধি তা জানার পরও কোন ব্যবস্থা নেননি। সেজন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বারকে গ্রেফতার করে ঘটনা গোপন করার অভিযোগ এনে তাকে দুই দিনের পুলিশি রিমাণ্ডে নেয়া হয়েছে।

নোয়াখালী জেলার পুলিশ সুপার মো: আলমগীর হোসেন বলেছেন, ঘটনা কেন গোপন করা হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত নারীর সাথে কথা বলে তারা জানতে পেরেছেন যে, ঘটনার পর তিনি ইউপি মেম্বারকে অবহিত করেছিলেন। কিন্তু কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

“এই যে ইউপি মেম্বার বড় একটা অপরাধ করেছে। এমন বড় একটা ঘটনা গোপন করেছেন। এটা অপরাধীদের এক ধরণের উস্কানি দেয়া বা লুকিয়ে রাখার অপরাধ হয়েছে। সেজন্য তাকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে ঘটনা গোপন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।”

মি: হোসেন আরও বলেছেন, “ক্ষতিগ্রস্ত আমাদের কাছে যে বক্তব্য দিয়েছে এবং আদালতে জবানবন্দি যা দিয়েছে-এই দু’টো বক্তব্যকে মিলিয়ে আমরা তদন্ত শুরু করেছি।”

দু’দিন ধরে নির্যাতনের ঘটনার প্রতিবাদে ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সংগঠন বিক্ষোভ করছে।

মঙ্গলবার ঢাকায় শাহবাগের কাছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে একটি কালো পতাকা মিছিলে পুলিশ বাধা দিয়েছে। সেই মিছিলকারীদের সাথে পুলিশের ধস্তাধস্তি হলে এক পর্যায়ে পুলিশ লাঠিপেটা করে।

নোয়াখালীতে বিভিন্ন নারী সংগঠন জোটবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ করছে। সেই জোটের একজন নেত্রী লায়লা পারভিন বলেছেন, নির্যাতনের ঘটনা এবং ঘটনা গোপন রাখা-দু’টি বিষয়েই তারা দ্রুত বিচার চাইছেন।

“জনপ্রতিনিধি যখন ব্যবস্থা নেননি। সেটা একটা বড় গাফিলতি। সেজন্য সামগ্রিকভাবে বিচার কার্যক্রম শুরু না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।”

সুত্র বিবিসি

Print Friendly, PDF & Email

     একই ধরনের আরও কিছু খবর....

Top Posts & Pages

পাংশা থানা পুলিশের অভিযান  ২টি ওয়ান শুটারগান ৫রাউন্ড গুলি ও চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার ॥ গ্রেপ্তার ৪
রাজবাড়ীতে গাঁজা ও হেরোইনসহ গ্রেপ্তার ৩
রাজবাড়ীর নদী তীর সংরক্ষণ কাজের ভাঙন পরিদর্শনে সালমা চৌধুরী এমপি
পাংশা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. পাতার করোনায় মৃত্যু
অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যকে ফুল দিয়ে শোভিত গাড়িতে পৌছে দেওয়া হলো বাড়ি