Dhaka 3:28 pm, Friday, 3 February 2023

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে কুয়াশায় দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : 07:11:30 pm, Sunday, 6 December 2020
  • / 1289 জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ মৌসুমের প্রথম ঘন কুয়াশায় দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে রোববার টানা দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এতেকরে সারাদিনই দৌলতদিয়ায় নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে আটক পড়ে শতাধিক যাত্রীবাহী বাস ও গোয়ালন্দে মোড়ে কয়েকশ পন্যবাহী ট্রাক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রোববার ভোর রাত থেকে নদী এলাকায় তীব্র কুয়াশা পড়তে শুরু করে। সময় বাড়ার সাথে সাথে কুয়াশার ঘনত্ব বৃদ্ধি পেতে থাকে। সকাল সোয়া ৭টার দিকে নৌপথ কুয়াশার চাদরে ঢেকে ফেলে। এ পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ যে কোন ধরনের দূর্ঘটনা এড়াতে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষনা করে। সকাল পৌনে ৯টার দিকে কুয়াশার ঘনত্ব কিছুটা কমে এলে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বল করে নৌরুটে ফেরি ও অন্যান্য নৌযান চলাচল শুরু হয়। এসময় রুটে চলাচল কারী সকল ফেরি যাত্রী ও যানবাহন বোঝাই করে ঘাট পন্টুনেই বাঁধা ছিল।

এদিকে ব্যস্ততম এই নৌরুটে টানা দেড় ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ থাকায় নদী পারের অপেক্ষায় আটকে থাকা যানবাহনের সারি দীর্ঘ হতে থাকে। পরবর্তীতে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হলেও রোববার সারাদিনই ঘাট এলাকায় যানবাহনের সারি ছিল। অপরদিকে ঘাট এলকায় যানবাহনের সারি ছোট রাখতে কয়েকশ পন্যবোঝাই ট্রাক গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় সিরিয়ালে আটকে রাখা হয়। আটকে থাকা যানবাহনের যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টরা এসময় চরম দূর্ভোগ পোহান।

রোরো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের মাস্টার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হঠাৎ করে কুয়াশার ঘনত্ব বেড়ে গেলে নৌপথ দৃষ্টিসীমার বাইরে চলে যায়। তাই কর্তৃপক্ষ দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়।

বিআইডব্লিটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি জানান, চলতি শীত মৌসুমে রবিবারই প্রথম প্রায় দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ রাখতে বাধ্য হতে হয়। রুটে ১৬টি ফেরি যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করছে। নদী পারের অপেক্ষায় সিরিঅলে আটকে থাকা সকল যানবাহন দ্রুত সময়ের মধ্যে পারাপারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে কুয়াশায় দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ

প্রকাশের সময় : 07:11:30 pm, Sunday, 6 December 2020

জনতার আদালত অনলাইন ॥ মৌসুমের প্রথম ঘন কুয়াশায় দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে রোববার টানা দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এতেকরে সারাদিনই দৌলতদিয়ায় নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে আটক পড়ে শতাধিক যাত্রীবাহী বাস ও গোয়ালন্দে মোড়ে কয়েকশ পন্যবাহী ট্রাক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রোববার ভোর রাত থেকে নদী এলাকায় তীব্র কুয়াশা পড়তে শুরু করে। সময় বাড়ার সাথে সাথে কুয়াশার ঘনত্ব বৃদ্ধি পেতে থাকে। সকাল সোয়া ৭টার দিকে নৌপথ কুয়াশার চাদরে ঢেকে ফেলে। এ পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ যে কোন ধরনের দূর্ঘটনা এড়াতে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষনা করে। সকাল পৌনে ৯টার দিকে কুয়াশার ঘনত্ব কিছুটা কমে এলে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বল করে নৌরুটে ফেরি ও অন্যান্য নৌযান চলাচল শুরু হয়। এসময় রুটে চলাচল কারী সকল ফেরি যাত্রী ও যানবাহন বোঝাই করে ঘাট পন্টুনেই বাঁধা ছিল।

এদিকে ব্যস্ততম এই নৌরুটে টানা দেড় ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ থাকায় নদী পারের অপেক্ষায় আটকে থাকা যানবাহনের সারি দীর্ঘ হতে থাকে। পরবর্তীতে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হলেও রোববার সারাদিনই ঘাট এলাকায় যানবাহনের সারি ছিল। অপরদিকে ঘাট এলকায় যানবাহনের সারি ছোট রাখতে কয়েকশ পন্যবোঝাই ট্রাক গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় সিরিয়ালে আটকে রাখা হয়। আটকে থাকা যানবাহনের যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টরা এসময় চরম দূর্ভোগ পোহান।

রোরো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের মাস্টার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হঠাৎ করে কুয়াশার ঘনত্ব বেড়ে গেলে নৌপথ দৃষ্টিসীমার বাইরে চলে যায়। তাই কর্তৃপক্ষ দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়।

বিআইডব্লিটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি জানান, চলতি শীত মৌসুমে রবিবারই প্রথম প্রায় দেড় ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ রাখতে বাধ্য হতে হয়। রুটে ১৬টি ফেরি যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করছে। নদী পারের অপেক্ষায় সিরিঅলে আটকে থাকা সকল যানবাহন দ্রুত সময়ের মধ্যে পারাপারের চেষ্টা করা হচ্ছে।