Dhaka ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে সিআইডির এসআই হত্যায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

সংবাদদাতা-
  • প্রকাশের সময় : ০৯:১৩:৪৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০
  • / ১৩৯৬ জন সংবাদটি পড়েছেন

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে সিআইডির এসআই আব্দুর রাজ্জাক হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাসুদ করিম এ রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলো রাকিবুল ইসলাম, আকমল শেখ, কুদ্দুস, বুলু, জালালউদ্দিন, ডালিম ও তপন। এদের সবার বাড়ি বর্তমান কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। নিহত আব্দুর রাজ্জাক পার্শ্ববর্তী সাওরাইল ইউনিয়নের পাতুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি সিআইডির নারায়ণগঞ্জ জোনে কর্মরত ছিলেন।
আদালত সূত্র জানায়, ২০১১ সালের ৯জানুয়ারি তারিখে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে আব্দুর রাজ্জাক পরিবারবর্গ নিয়ে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে যান। পরদিন ১০ জানুয়ারি জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন আব্দুর রাজ্জাককে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। ওই ঘটনায় তার ভাতিজা গোলাম নবীসহ কয়েকজন আহত হয়। হত্যাকান্ডের ঘটনায় ১১ জানুয়ারি আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী রোকেয়া রাজ্জাক বাদী হয়ে রাকিবুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে ১৬ জনের বিরুদ্ধে পাংশা থানায় মামলা করেন।
মামলায় পুলিশ আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশীট প্রদান করে। আদালত সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে ১৬ আসামির মধ্যে নয়জনকে বেকসুর খালাস ও সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

Tag :

সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন-

রাজবাড়ীতে সিআইডির এসআই হত্যায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশের সময় : ০৯:১৩:৪৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০

জনতার আদালত অনলাইন ॥ রাজবাড়ীতে সিআইডির এসআই আব্দুর রাজ্জাক হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাসুদ করিম এ রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলো রাকিবুল ইসলাম, আকমল শেখ, কুদ্দুস, বুলু, জালালউদ্দিন, ডালিম ও তপন। এদের সবার বাড়ি বর্তমান কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে। নিহত আব্দুর রাজ্জাক পার্শ্ববর্তী সাওরাইল ইউনিয়নের পাতুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি সিআইডির নারায়ণগঞ্জ জোনে কর্মরত ছিলেন।
আদালত সূত্র জানায়, ২০১১ সালের ৯জানুয়ারি তারিখে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে আব্দুর রাজ্জাক পরিবারবর্গ নিয়ে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে যান। পরদিন ১০ জানুয়ারি জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন আব্দুর রাজ্জাককে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। ওই ঘটনায় তার ভাতিজা গোলাম নবীসহ কয়েকজন আহত হয়। হত্যাকান্ডের ঘটনায় ১১ জানুয়ারি আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী রোকেয়া রাজ্জাক বাদী হয়ে রাকিবুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে ১৬ জনের বিরুদ্ধে পাংশা থানায় মামলা করেন।
মামলায় পুলিশ আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশীট প্রদান করে। আদালত সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে ১৬ আসামির মধ্যে নয়জনকে বেকসুর খালাস ও সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।